1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১২:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধু পরম হিতৈষী মানব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ ছাতকে লাফার্জহোলসিম এর ত্রান বিতরণঃ অন্যান্যদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানালেন স্থানীয় এমপি ভৈরবে বিভিন্ন দল থেকে দুই হাজার লোকের আওয়ামীলীগে যোগদান বন্যার্তদের সহযোগিতার জন্য যশোর জেলা বিএনপির অর্থ সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু বঙ্গবন্ধু সারাটি জীবন মনুষ্য সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন: ড.কলিমউল্লাহ ভৈরবে এক হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ছাতক পিডিবির কর্মকতা ও কর্মচারীদের বিরুদ্ধে মিটার চুরি ও ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ দুর্গাপুরে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা তুলে দিয়ে ১০০ টাকা রেখে দিচ্ছেন বিকাশ দোকানি রংপুরে তরুণীকে ধর্ষণ, ১৫ বছর পর ৩ জনের যাবজ্জীবন ফেনীর সোনাগাজীতে মোশারফ হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ।

‘মনোহরঞ্জে অ’সামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে ঘন ধোলাইয়ের অভিযোগ!

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ এপ্রিল, ২০২০
  • ১২৪ বার

লাকসাম সংবাদদাতা, এস এম শাহজালাল:

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার সরসপুর ইউনিয়নের বড় পুকুর পাড় এলাকায় গত ১৭ এপ্রিল রাত্রে আনোয়ার হোসেন নামক এক মেম্বার কে অ’সামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে ঘন ধোলাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার বিবরনে জানাযায়, লক্ষনপুর ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেম্বার ও ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মো: আনোয়ার হোসেন মেম্বার, তিনি বর্তমানে ২ স্ত্রী ও ৬ সন্তানের জনক। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আনোয়ার মেম্বার গ্রামের বিভিন্ন বিধবা মহিলা ও কিছু সংখ্যোক প্রবাসীদের স্ত্রী’র সাথে পরকিয়া করে বেড়ান। ঘটনার বিবরনে আরো জানাযায়, ঐ দিন প্রতিদিনের ন্যায় পাশ্ববর্তী সরসপুর ইউনিয়নের বড়পুকুর পাড় এলাকার ইয়াকুব আলীর বিধবা মেয়ে মনোয়ারা বেগমের সাথে অ’সামাজিক কার্যকলাপে হাতে নাতে আটক করে স্থানীয় জনতা। আটক হওয়ার পর ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে ঐ ইউপি: চেয়ারম্যান তাকে উদ্ধার করেন এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন। অভিযোগের সুত্রে আরো জানাযায়, আনোয়ার হেটে হেটে ঐ সমস্থ কার্যকলাপ করে বেড়ান, তিনি আরো গত কয়েএকদিন আগে ও তাদের এলাকায় কার্যকলাপ করতে গিয়ে আটক হোন। তার এহেন কর্মকান্ড সামাজিক যোগাযোগ সহ বিভিন্ন স্থানে ছিটিয়ে পড়ে। এ দিকে লক্ষনপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যন আলহাজ্ব মো: মহিন উদ্দিন চৌধুরী বলেন, তার অ’সামাজিক কার্যকলাপের প্রমাণ সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে, তারা তাদের অপরাধ শিকার করেছেন। এমন কোন বেয়াদপ এর স্থান আমার ইউনিয়নে থাকার প্রয়োজন নেই, আমার এবং আমার পরিষোধের মান ইজ্জত সব শেষ করেছে, আমি আমার প্রশাষনের কর্তপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করচ্ছি, এমন বেয়াদপ এর স্থান আমার পরিষদে হবেনা, অনতিভিলম্বে তার সদস্য পদ বাতিল করা হোক। এ দিকে আনোয়ার হোসেন মেম্বার বলেন” আমার সুনাম নষ্ট করার জন্য এই ঘটনা ঘটনো হয়েছে। আমি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাস্থা নিবো।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..