মালয়েশিয়াতে চলছে অবৈধ অভিবাসী আটক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী ও শরণার্থীদের আটক চলছে। শনিবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে শুক্রবার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে ৫৮৬ জনকে আটক করেছিল পুলিশ।

জাতিসংঘ সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, মালয়েশিয়া সরকারের এই অভিযানের ফলে এই অবৈধ অভিবাসীদের বিভিন্ন স্থানে লুকিয়ে থাকতে বাধ্য করবে এবং করোনায় আক্রান্ত হলেও এরা আটকের ভয়ে চিকিৎসা নেবে না।

মানবাধিকার সংস্থাগুলো জানিয়েছে, আটককৃতদের মধ্যে কিশোর ও মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীরা রয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, অবৈধ অভিবাসীরা যাতে এই করোনা সংকটের সময় এক জায়গা থেকে অন্যত্র যেতে না পারে তার জন্যই এই অভিযান। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ সম্ভব।

জাতিসংঘ এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়াকে অভিবাসী আটক বন্ধ এবং সব শিশু-কিশোর ও তাদের অভিভাবকদের মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে। আটককেন্দ্রে অতিরিক্ত মানুষের কারণে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক বেড়ে যাবে বলেও সতর্ক করেছে সংস্থাটি।

মালয়েশিয়ার নিরাপত্তা মন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব এই সমালোচনা প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, যাদেরকে আটক করা হয়েছে তাদের সবার কোভিড-১৯ নেগেটিভ। এদেরকে পরবর্তী পদক্ষেপের জন্য ইমিগ্রেশনের আটককেন্দ্রে পাঠানো হবে। আইন অনুযায়ী এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.