1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahmed : Sohel Ahmed
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৪৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজধানীর বাজারগুলোয় কিছুটা কমেছে চালের দাম, বেড়েছে মুরগির দাম মুম্বাইয়ে ফের জঙ্গি হামলার হুমকি, সতর্কতা জারি বিএনপির আন্দোলনে জনগণ সাড়া দেয় না : আমু দেশের ৩২ জেলায় নিপাহ ভাইরাসের সংক্রমণ চন্দনাইশ হাশিমপুরে মিলাদ মাহফিলে শায়েখ মাও. হাসান আল- আজহারী ভৈরবে ছাত্রী অপহরণ মামলার আসামী গ্রেফতার সত্যিই আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের দিকে যাত্রা শুরু করেছি – শিক্ষামন্ত্রী পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর অবজ্ঞা আর রক্ত চক্ষু উপেক্ষা করে শক্ত অবস্থান নিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু : ড.কলিমউল্লাহ বাগেরহাটের রামপালে ০৯ (নয়) কেজির অধিক তামারসহ চোর চক্রের ০৩ জন সদস্য আটক জাপানি মেয়েসহ আত্মগোপনে থাকা বাবাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব

করোনা সংক্রমনের হটস্পট ৩ জেলায় বিশেষ নজরদারী চান স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩ মে, ২০২০
  • ৯৬ বার

সিটি প্রতিবেদক: স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর এ তিন জেলা করোনার হটস্পট।  এসব জেলা থেকে যেন কেউ বাইরে না যান এবং বাইরের কেউ না আসেন সেটি নিশ্চিত করতে পুলিশ প্রশাসনকে বলা হয়েছে।

রোববার (০৩ মে) দুপুরে সচিবালয়ে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে করোনা পরিস্থিতির মধ্যে কারখানা, গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিসহ বিভিন্ন শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সীমিত আকারে চালু করতে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি বলেন, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর এ তিন জেলা করোনাভাইরাসের হটস্পট।  এ এলাকাগুলোকে বিশেষভাবে দেখতে পুলিশ প্রশাসনকে বলা হয়েছে।  যেসব শ্রমিক ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুরে চলে আসছেন, করোনা সংক্রমণ না কমা পর্যন্ত তাদের এখানেই থাকতে হবে।  এসব জেলা থেকে যেন কেউ বাইরে না যান এবং বাইরের কেউ না প্রবেশ করেত পারেন সেটি নিশ্চিত করতে প্রশাসনকে বলা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, পোশাক শিল্পের স্বাস্থ্যবিধি মনিটর করতে আলাদা কমিটি হবে। প্রতিটি ফ্যাক্টরিতে একটি করে মেডিক্যাল টিম থাকবে, তারা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা পালন করবে।  কারখানা চালানোর ক্ষেত্রে কিছু নিয়ম-কানুন মেনে চলতে হবে।

সভায় স্বাস্থ্য সচিব আসাদুল ইসলাম বলেন, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর এই তিনটি জেলায় সবচেয়ে বেশি করোনা সংক্রমণ হয়েছে।  কীভাবে এসব জেলার মানুষকে আলাদা রাখা যায় এবং তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেন এবিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সেখানে বেশি সংক্রমিত সেখানে আইসোলেশন সেন্টার করা, টেস্ট কীভাবে বেশি করা যায় সেটি নিশ্চিতের বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..