কুলিয়ারচরে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ইকবাল হোসেন ভূইয়ার ঈদ পরর্তী খাদ্যসামগ্রী বিতরণ।

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, হাওর অঞ্চল প্রতিনিধি ;

কোভিড -১৯ করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশে পবিত্র ঈদ-উল ফিতর পরবর্তী কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নে আবারও শতাধিক কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী উপহার দিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি ও ঢাকা সুপ্রিম কোর্টের এডভোকেট মোঃ ইকবাল হোসেন ভূইয়া।

তিনি ঈদ পরবর্তী ঈদ-উল ফিতরের ৩ দিন পর অর্থাৎ শুক্রবার (২৯ মে) সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়ন আবদুল হামিদ ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তার নিজ ইউনিয়নের আনাচে কানাচে থাকা সুবিধা বঞ্চিত ও অসহায় কর্মহীন ১০৩ টি পরিবারের মাঝ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মুক্তি মামুদ খোকা, আওয়ামী লীগ নেতা মাকসুদুর রহমান মুছা, ফরিদপুর মাজার পরিচালনা ও উন্নয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক তারেক আজিজ খান ইকবাল, আওয়ামী লীগ নেতা আলামিন ভূইয়া টেংকু, মোঃ শহিদুল ইসলাম শহিদ, আমজাদ হসেন ভূইয়া (শুভা), আবুল কালাম, মোঃ সবুজ মিয়া, ফরিদপুর ইউনিয়ন আবদুল হামিদ ভূইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদির, সদস্য মোঃ কামাল হসেন, মোঃ ওমর ফারুক ভূইয়া, অবিলাস চন্দ্র ভৌমিক, মোঃ ছানাউল্লাহ ভূইয়া, মোঃ আক্তার হোসেন ও ফরিদপুর ইউনিয়নের দায়িত্বরত সেচ্চাসেবক সদস্যগন।

এডভোকেট মোঃ ইকবাল হোসেন ভূইয়া এর আগে অর্থাৎ ঈদের আগেরদিন গত (২৪ মে) রোববার সকালে তার গ্রামের বাড়ি ফরিদপুর ইউনিয়নের আনাচে কানাচে থাকা সুবিধা বঞ্চিত ও অসহায় কর্মহীন ২শত পরিবারের মাঝে ঈদ-উল ফিতর উপলক্ষে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী সহ কিছু মানুষের হাতে নগদ টাকা তুলে দিয়েছেন ।

এ ব্যাপারে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক, রাজপথ কাঁপানো ও সময়ের সাহসিক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এডভোকেট মোঃ ইকবাল হোসেন ভূইয়া বলেন, আমাদের দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি নির্দেশনা মানতে মানুষ অনেকটা ঘরবন্দী হয়ে পড়েছেন। আবার অনেকে কাজকর্ম করতে পারছেনা। অনেকের আয় রোজগারও বন্ধ হয়ে গেছে। এ অবস্থায় কর্মহীন হয়ে পড়া নিম্ন আয়ের মানুষ ও অসহায় মানুষগুলো অনেকটা কষ্টের মাঝে দিনাতিপাত করছে বলে আমি জানতে পারি। তাই আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশানায় সম্পুর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে আমি আমার এলাকার সুবিধা বঞ্চিত, কর্মহীন ও অসহায় মানুষগুলো যাতে পরিবার পরিজন নিয়ে কষ্ট না করে সেজন্য ঈদ পরবর্তী আবারও উপহার হিসেবে এই খাদ্যসামগ্রী দিয়ে তাদের সহায়তার হাত বারিয়েছি।করোনা পরিস্থিতি যতদিন থাকবে ততদিন আমার স্বাধ্য অনুযায়ী এ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

সবশেষে তিনি তার নিজ এলাকাসহ দেশবাসীর নিকট দোয়া ও ভালোবাসা কামনা করে সবার উদ্দেশ্যে বলেন, সকলে ঘরে থাকুন সুস্থ থাকুন, সরকারি নির্দেশনা মেনে চলুন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন, নিজে সুস্থ থাকুন এবং অন্যকেও সুস্থ্য রাখুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.