ভৈরবে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে প্রণোদনার চেক বিতরণ।

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব(কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ভৈরবে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে প্রণোদনার চেক বিতরণ করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ভৈরবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী ও জয়ীদের মাঝে শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে এই চেক বিতরণ করা হয়েছে। আজ ৫ জুলাই রোববার উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভৈরব উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুবনা ফারজানা ৫০ জনের হাতে এই চেক তুলে দেন।

চেক বিতরণের সময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) হিমাদ্রী খীসা, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি আলহাজ্ব জিল্লুর রহমানের একান্ত সচিব সাখাওয়াত উল্লাহ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি খলিলুর রহমান লিমন প্রমুখ।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি আলহাজ্ব জিল্লুর রহমানের একান্ত সচিব সাখাওয়াত উল্লাহ বলেন,
করোনা পরিস্থিতিতে বিসিবি সভাপতি ও ভৈরব- কুলিয়ারচরের সাংসদ আলহাজ্ব নাজমুল হাসান পাপন অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। রোগীদের জন্য ঔষধ ও পরীক্ষা সামগ্রী প্রেরণ করেছেন। আমরা খুব ভাগ্যবান আমরা আজ সুস্থ। এখনো করোনা প্রতিরোধে কোন ভ্যাকসিন আবিস্কার হয়নি। এই রোগে মৃত্যুবরণ করেছেন অনেকে। আপনাদের পরিবারের সদস্যসহ আত্মীয় স্বজনদেরও এবিষয়ে বেশি বেশি সচেতন করতে হবে। এসময় তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় এমপি নাজমুল হাসান পাপন এর জন্য ভৈরববাসীর কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন।

এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার লুবনা ফারজানা বলেন প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল হতে নোভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারী ৯ জনের প্রত্যকের পরিবারকে ৫ হাজার টাকা করে মোট ৪৫ হাজার টাকা ও আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হওয়া করোনাজয়ী ৪১ জনের প্রত্যকের হাতে ২ হাজার ৫শ টাকা করে মোট ১ লাখ ২৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়েছে। এভাবে পর্যায়ক্রমে মোট ৩৬১ জনের মাঝে মোট ৯ লক্ষ ২৫ হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হবে। উল্লেখ্য যে গত ১৮ মে ১২ জন করোনা জয়ীর মাঝে ৫ হাজার টাকা করে মোট ৬০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়। এছাড়া দেশের এই দুর্যোগময় মুহূর্তে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.