1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১০:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উদ্বাস্তু পুনর্বাসনে বঙ্গবন্ধু অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন: ড.কলিমউল্লাহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্নচারী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ বিজিবির রাতভর অভিযানে ভোরে ৯ গরু জব্দ, আরো ৫১টি গরু পাহাড়ে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন,ভুয়া এমবিবিএস ও এমডি পদধারী প্রতারক ডাক্তার আটক র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসকারীদের জন্য ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ঈদগাঁও বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ! বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হারাগাছ সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত। রংপুরের গংচড়ায় বিধবা ভাতা ও একটি টিনের ঘরের জন্য আকুতি জানিয়েছেন রুনা লায়লা গ্লোবাল টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসী মুন্নার গ্রেফতারের দাবিতে সাভারে বিভিন্ন কর্মসূচী

ফেলোশিপ-মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সমকালের জাহিদ।

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
  • ১২১ বার

মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ও ফেলোশিপ পেয়েছেন দৈনিক সমকালের স্টাফ রিপোর্টার সাজিদা ইসলাম পারুল ও সমকালের সহ-সম্পাদক জাহিদুর রহমান।

শনিবার অধিদফতরের আইইএম ইউনিটের এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে নির্বাচিত গণমাধ্যমকর্মীকে প্রতীকী ক্রেস্ট ও সনদপত্র প্রদান করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপন এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ও ফেলোশিপ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এ বছর পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের যুগ্ম সচিব ও পরিচালক (আইইএম) ড. আশরাফুন্নেছা নির্বাচিত সাংবাদিকদের তালিকা প্রকাশ করেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের আইইএম ইউনিটের আইইসি অপারেশনাল প্ল্যানের ২০২০ সালের পরিবার পরিকল্পনা, মা, শিশু ও নবজাতক স্বাস্থ্য এবং জনসংখ্যা ইস্যু বিষয়ক লেখালেখির জন্য প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক, অনলাইনের ৪০ জন সাংবাদিককে ফেলোশিপ প্রদান করা হলো।

নির্বাচিত প্রত্যেকে নগদ পঞ্চাশ হাজার টাকা করে পাবেন। একই সঙ্গে সমকালের স্টাফ রিপোর্টার সাজিদা ইসলাম পারুলসহ ৬ জন গণমাধ্যমকর্মীকে মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়।

পুুরস্কারপ্রাপ্ত অন্যরা হলেন- দৈনিক ইনকিলাবের মাইনুল হাসান সোহেল, বাংলাদেশ পোস্টের সিনথিয়া কাইনাত নূর, ডেইলি স্টারের নিলীমা জাহান, গাজী টেলিভিশনের চিফ রিপোর্টার রাজু আহমেদ, এটিএন বাংলার সিনিয়র রিপোর্টার শারফুল আলম।

অনুষ্ঠানে শ্রেষ্ঠ পরিবার পরিকল্পনা কর্মী ও সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠানকেও পুরস্কার দেওয়া হয়। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘মহামারী কভিড-১৯ কে প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরীর সুস্বাস্থ্যের অধিকার নিশ্চিত করি’।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আলী নূরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব আবদুল মান্নান, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের মহাপরিচালক সাহান আরা বানু, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের (ইউএনএফপিএ) বাংলাদেশ প্রতিনিধি ড. অশা টর্কলসন, পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের আইইএম ইউনিটের পরিচালক ডা. আশরাফুন্নেসা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যুর হার অনেক কম।

করোনার সময়গুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাটাবেন। মাস্ক পরে বাসা থেকে বের হবেন। সামাজিক দূরত্ব তিন ফুট নয়, ছয় ফুট বজায় রাখবেন। তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশে করোনার প্রভাবের কারণে প্রজনন স্বাস্থ্যসেবাও কিছুটা কমেছে। করোনার কারণে মায়েদের ঘরের কাজ বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের দেশে দারিদ্র্যসীমা বেড়ে যেতে পারে। করোনা বৃদ্ধি পেলে বাল্যবিয়েও বাড়তে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..