1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১২:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাবনা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনের অযৌক্তিক ভাড়া নির্ধারণের প্রতিবাদে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু অধ্যবসায়ী নেতা ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ ঊনপঞ্চাশটি মোবাইল ফোনসহ পোনে এক লক্ষ টাকা উদ্ধার চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পন সহকারী অধ্যাপক হিসাবে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে বশেমুরবিপ্রবি শিবচরে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে শেখ কামাল’র জন্মবার্ষিকী পালিত বরগুনার তালতলীতে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন রংপুর চিড়িয়াখানায় জলহস্তি নুপুর ও কালাপাহাড় জুটির প্রথমবার বাচ্চা প্রসব রংপুরে অনুমোদনহীন ঔষধ কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান ঔষধ জব্দসহ অর্থদন্ড পাবনা ফরিদপুরে সন্ত্রাসীদের গ্রামবাসীর গণপিটুনি

রৌমারী-রাজিবপুরে বন্যার পরিস্থিতির আরো অবনতি

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৫ জুলাই, ২০২০
  • ২০৪ বার

মাসুদ রানা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা : কুড়িগ্রামের রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলায় বন্যার পরিস্থিতির অবনিত ঘটেছে। ১৪ জুলাই (মঙ্গোলবার) থেকে অস্বাভাবিক ভাবে বেড়েছে বন্যার পানি। তলিয়ে গেছে রৌমারী উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজার,রাস্তা-ঘাট ও শতশত বাড়িঘর।

অপর দিকে রাজিবপুর উপজেলার রৌমারী টু ঢাকাগামী ডিসি রাস্তা ছাড়া ৩টি ইউনিয়নের সমস্ত এলাকা বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। উপজেলা চত্বরে হাটু পানি হয়েছে। পাশাপাশি শিশুপার্ক, বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, রাস্তা-ঘাট, হাট বাজার বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে উপজেলার সাথে অত্র এলাকার সকল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ইতোমধ্যে রাজিবপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৬ মে:টন চাউল, ৪থশ শুকনো খাবার ও রাজিবপুর সদর ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে ৩থশ শুকনো খাবার বানভাসিদের মাঝে বিতরন করা হয়েছে।

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢল ও টানা বর্ষণে ব্রহ্মপুত্র, সোনাভরি, জিঞ্জিরাম ও হলহলি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা মারাত্মক ভাবে বিঘ্ন সৃষ্টি হয়েছে। হতাশায় পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ। বিপাকে পড়েছেন গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া,  হাঁস-মুরগীসহ ঘরের মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে। উপজেলার কোদালকাটি ইউনিয়ন ও মোহনগঞ্জ ইউনিয়নের মানুষ খুব কষ্টে জীবনযাপন করছে। এখন পর্যন্ত রাজিবপুর উপজেলায় প্রায় ৯০ ভাগ মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে । বন্যার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় দুই উপজেলার ব্রহ্মপুত্র নদের তীরবর্তী গ্রামগুলোতে নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। সেই সাথে রাজিবপুর টু জামালপুর মহাসড়ক চরম হুমকির মধ্যে রয়েছে। যেকোনো সময় মহাসড়কটি ভেঙ্গে রাজধানী ঢাকার সাথে যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

রাজিবপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বাদল জানান, আমার ইউনিয়নের পক্ষ থেকে বন্যা দূর্গত এলাকার মানুষকে ৩থশ শুকনো খাবার দিয়েছি এবং আরো দেওয়ার চেষ্টা করবো।

রাজিবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো.আকবর হোসেন (হিরো) বলেন, উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে যতোটুকু পারি বানভাসি পরিবারকে সহযোগিতা করেছি। নিয়মিত খোজ খবর রাখছি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার নবিরুল ইসলাম জানান, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে। আটকে পড়া বানভাসিদের নৌকা দিয়ে নিরাপদ স্থানে নেওয়া হচ্ছে এবং যাদের বাড়ি ঘর তলিয়ে গেছে তাদেকে আশ্রয় কেন্দ্রে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..