1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাবনা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনের অযৌক্তিক ভাড়া নির্ধারণের প্রতিবাদে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঊনপঞ্চাশটি মোবাইল ফোনসহ পোনে এক লক্ষ টাকা উদ্ধার চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পন সহকারী অধ্যাপক হিসাবে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে বশেমুরবিপ্রবি শিবচরে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে শেখ কামাল’র জন্মবার্ষিকী পালিত বরগুনার তালতলীতে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন রংপুর চিড়িয়াখানায় জলহস্তি নুপুর ও কালাপাহাড় জুটির প্রথমবার বাচ্চা প্রসব রংপুরে অনুমোদনহীন ঔষধ কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান ঔষধ জব্দসহ অর্থদন্ড পাবনা ফরিদপুরে সন্ত্রাসীদের গ্রামবাসীর গণপিটুনি পাবনা সুজানগরে ডিবি পরিচয়ে কসাই থেকে ২৫ কেজি মাংস নিয়ে পলাতক আসামী গ্রেপ্তার

কে হচ্ছেন পরবর্তী স্বাস্থ্য মহাপরিচালক?

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২২ জুলাই, ২০২০
  • ১৭৫ বার

 

বিশেষ সংবাদদাতা
মঙ্গলবার (২১ জুলাই) জনপ্রশাসন সচিবের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের বর্তমান মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। তার পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পর সবার মুখে এখন একটাই প্রশ্ন- কে হচ্ছেন স্বাস্থ্যের পরবর্তী মহাপরিচালক।
সরকারি নিয়মনীতি অনুসারে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের পদত্যাগপত্র প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে। তিনি পদত্যাগপত্র গ্রহণ করলে এ পদত্যাগ কার্যকর হবে।
ডা. আবুল কালাম আজাদ পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পর থেকেই মহাপরিচালক হিসেবে অনেকের নাম শোনা যাচ্ছে। জানা গেছে, স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের পদপ্রত্যাশী অনেকেই রয়েছেন। তবে বর্তমান মহামারি করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে তাদেরই কেউই এখন এ পদে দায়িত্ব নিতে রাজি নন।
স্বাস্থ্যখাতের সঙ্গে দীর্ঘদিন যারা জড়িত তাদের অনেকেই বলছেন, স্বাস্থ্যখাতের রন্ধ্রে রন্ধ্রে অনিয়ম ও দুর্নীতি ঢুকে গেছে। তাদের কথা, যত সৎ ও যোগ্য লোককেই স্বাস্থ্য মহাপরিচালকের পদে বসানো হোক না কেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তা থেকে শুরু করে চিকিৎসকদের একাধিক নেতাদের গ্রুপিং, লবিং এবং সংঘবদ্ধ ঠিকাদার চক্রসহ নানা মহলের চাপে ও পদ্ধতিগত দুর্বলতার কারণে শেষ পর্যন্ত স্বাস্থ্য মহাপরিচালককে ব্যর্থতার দায় নিয়ে বিদায় নিতে হবে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের নতুন মহাপরিচালক হিসেবে অধিদফতরের মহাপরিচালক (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. এএইচএম এনায়েত হোসেন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানার নামই বেশি শোনা যাচ্ছে।
এছাড়া আরও যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন- স্বাস্থ্য শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. আবুল হাশেম খান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল ইউসুফ ফকির, সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব প্রিভেন্টিভ অ্যান্ড সোশ্যাল মেডিসিনের (নিপসম) পরিচালক অধ্যাপক ডা. বায়েজিদ খুরশীদ রিয়াজ, মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. টিটু মিয়া, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. শামীম হাসান, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ।
স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্টরা বলছেন, স্বাস্থ্য মহাপরিচালক কে হবেন তা নির্ভর করছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছার ওপর।
সমালোচনার মুখে থাকা স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে গিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দেন।
চাকরির নির্ধারিত মেয়াদ শেষে দুই বছরের চুক্তিতে রয়েছেন আবুল কালাম। আগামী বছরের ১৪ এপ্রিল তার সেই চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) থাকার সময় ২০১৬ সালের ২১ আগস্ট অধ্যাপক আজাদকে ডিজি নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়। ওই বছরের ১ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য অধিদফতরের শীর্ষ পদে যোগ দেন তিনি। গত বছরের ১৪ এপ্রিল তার চাকরি মেয়াদ শেষ হয়। এরপরই চুক্তিতে নিয়োগ পান তিনি।
করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ শুরু হলে চিকিৎসা কার্যক্রমসহ নানা বিষয় নিয়ে সমালোচিত হন ডিজি আবুল কালাম আজাদ। এন-৯৫ মাস্কের মোড়কে বিভিন্ন হাসপাতালে সাধারণ মাস্ক সরবরাহ কেলেঙ্কারির ঘটনায় সমালোচিত হন ডিজি। সর্বশেষ স্বাস্থ্য অধিদফতরের সঙ্গে চুক্তি করা রিজেন্ট হাসপাতালের ভুয়া করোনা সনদ নিয়ে বেকায়দায় পড়েন আবুল কালাম আজাদ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..