ঝিকরগাছা উলাকোল বায়তুল নুর জামে মসজিদের বাথরুম স্থাপনাটি রাতারাতি ভেঙে দিয়েছে ডাঃ জাহাঙ্গীর।

 

বিশেষপ্রতিনিধিঃ–
যশোর ঝিকরগাছা উপজেলার ১০ নং শংকরপুর ইউনিয়নের উলাকোল বায়তুল নুর বাজার জামে মসজিদের বাথরুম (১৯৮০) সালের স্থাপনা রাতারাতি ভেঙে গুড়িয়ে দিয়েছেন।

গত ৮ই জুলাই রাতে একদল সন্ত্রাসী সাথে নিয়ে ডাঃ জাহাঙ্গীর আলম, মসজিদের , বাথরুম,ভেঙে জমি নিজের দখলে নিয়েছে।

মসজিদ কমিটি সভাপতি ফয়জুর রহমানের অভিযোগ, কমিটি বা মুসুল্লিদের সাথে আলোচনা না করে এমন জঘন্যতম কাজ করেছে জাহাঙ্গীর বাহিনী।

এ ঘটনায় জড়িত জাহাঙ্গীরে’র সাথে সরাসরি যোগাযোগ করলে তিনি বলেন উপজেলা প্রশাসন ও বাঁকড়া নায়েব অফিসের অনুমতি নিয়ে আমার জমি নিজের দখলে নিয়েছি। জাহাঙ্গীর উপজেলা প্রশাসন ও বাঁকড়া নায়েব অফিসের কোন অনুমতি পত্র দেখাতে পারেননি।

এবিষয় উপজেলা নির্বাহি অফিসারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন।কোন ব্যক্তি লিখিত অভিযোগ করলে তদন্তে করে উভয়পক্ষকে চিঠির মাধ্যমে জানানো হয়।

উলাকোল জামে মসজিদের স্থাপনা উচ্ছেদ বিষয়টি উপজেলা অফিস অবগত না এবং জাহাঙ্গীর আলম,উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে মসজিদের অজুখানা,বাথরুম,ভাঙ্গার ছাড়পত্র নিয়েছে এ কথাটা সঠিক না।

উল্লেখ্য: মসজিদ কমিটি মুসল্লিরা এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি জনপ্রতিনিধি সহ সাধারণ জনগণের ভিতরে গভীর ক্ষোভ ও জনমনে হতাশা বিরাজ করছে।

শুধু তাই নয় এই ডাঃ জাহাঙ্গীর হাসপাতালে ডিউটি ফাকি দিয়ে উলাকোল বাজারের ঔষধের ফার্মেসী খুলে নিজস্ব চেম্বার বানিয়ে ঔষধ বিক্রির পাশা পাশি গল্প গুজুব করে সময় পার করে সে কারনে অনেকে চিকিৎসা সেবা থেকে বন্চিত হতে থাকে যাহার ফলে তাহর বিরুদ্ধে কয়েকবার অনলাইন,পত্র পত্রিকায় ফেসবুকে তাহার নামে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.