শিক্ষা ও গবেষণা বিস্তারে একজন অনন্য উপাচার্যের ভূমিকা

 

উত্তরাঞ্চলের শিক্ষা ও গবেষণার আঁতুড়ঘর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর -এর মাননীয় উপাচার্য বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যারের একান্ত সদিচ্ছা ও আন্তরিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়টি ক্রমেই হয়ে উঠছে অত্যাধুনিক ও প্রযুক্তিনির্ভর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অনন্য উদাহরণ। তারই ধারাবাহিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়টির ইংরেজি বিভাগে সম্প্রতি স্থাপিত হয়েছে উন্নতমানের প্রযুক্তিনির্ভর ভাষা-শিক্ষণ সহায়ক হাই-টেক ল্যাংগুয়েজ ল্যাব।
বাংলাদেশের মতো যে সকল দেশে ইংরেজি ভাষাকে EFL (English as Foreign Language) হিসেবে পঠন-পাঠন করা হয় সেখানে ভাষা শিক্ষাদানের ক্ষেত্রে পদ্ধতিগত একটা বড় চ্যালেঞ্জ থেকেই যায়। শ্রেণিকক্ষে উন্নত প্রযুক্তির সর্বোত্তম ব্যাবহার নিশ্চিত করার মাধ্যমে সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করা অনেকাংশে সম্ভবপর হয়ে থাকে। একজন শিক্ষানুরাগী এবং দূরদর্শী উপাচার্য হিসেবে প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যার বরাবরই শিক্ষাসহায়ক সুযোগসুবিধা ও উপকরণ প্রদানে ভীষন আন্তরিক এবং প্রশংসার যোগ্য। এই করোনা পরিস্থিতির স্থবিরতার মাঝেও মাননীয় উপাচার্য মহোদয়ের নির্দেশে ইংরেজি বিভাগের ল্যাংগুয়েজ ল্যাবের অবকাঠামোগত উন্নয়নের কাজ অব্যাহত ছিল। ইতোমধ্যে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা সম্বলিত এবং শীতাতপনিয়ন্ত্রিত ল্যাংগুয়েজ ল্যাবটিতে সংযোজিত হয়েছে ৩০টি লেটেস্ট ভার্সনের ডেস্কটপ, ইউপিএস সংযোগ, ডিজিটাল ল্যাংগুয়েজ ল্যাব সফটওয়্যার, শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের জন্য হেডফোনসেট,অডিওবক্স, নেটওয়ার্কিং সিস্টেম, সিস্টেম স্পিকার, সাউন্ড সিস্টেম এ্যামপ্লিফায়ার, প্রজেক্টরসহ স্মার্টবোর্ড। সদ্য প্রতিষ্ঠিত ল্যাংগুয়েজ ল্যাবের কম্পিউটারসমূহ এবং আনুষঙ্গিক সরঞ্জামাদি বর্তমানের প্রেক্ষাপটে CALL(Computer Assisted Language Learning) কে ত্বরান্বিত করবে যা শিক্ষার্থীদের দ্বিতীয় ভাষা শিক্ষণ, চর্চা এবং প্রয়োগের দক্ষতা অর্জনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।
এমন একটি আধুনিক সরঞ্জামে সজ্জিত ভাষা শিক্ষণ ল্যাব পাওয়া রীতিমতো আনন্দের এবং আশ্চর্যের, যা কেবল মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যারের আধুনিক দৃষ্টিভঙ্গি ও সময়োচিত ভাবনার ফসল।
তিনি যেন বিশ্ববিদ্যালয়টিকে ঢেলে সাজাচ্ছেন। ডিজিটালাইজেশনের এই যুগে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর যেন কিছুতেই পিছিয়ে না থাকে সেদিকে তার সতর্ক নজর রয়েছে যা সর্বজননন্দিত। মাননীয় উপাচার্য স্যার বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল বিভাগে ভার্চুয়াল ক্লাসরুমের ব্যবস্থা করে দিয়েছেন, শিক্ষকদের দিয়েছেন কম্পিউটার সুবিধা, বিজ্ঞান বিভাগের ল্যাব ফ্যাসিলিটি বাড়ানোর পাশাপাশি অফিসিয়াল বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে মেলে ডিজিটালাইজেশনের ছোঁয়া। মাননীয় উপাচার্যের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর-কে আধুনিকায়নের সুদৃঢ় প্রতিজ্ঞা এবং তদানুযায়ী তার আপোষহীন কর্মতৎপরতার অংশ হিসেবে ইংরেজি বিভাগে যুক্ত হলো ল্যাবটি।
যুগোপযোগী এবং অত্যাধুনিক অতি প্রয়োজনীয় ল্যাংগুয়েজ ল্যাব প্রতিষ্ঠা করে ইংরেজি বিভাগকে সমৃদ্ধ করার পাশাপাশি আমার প্রিয় শিক্ষার্থীদের আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর উপায়ে ভাষা শিক্ষার সুযোগ তৈরি করে দেওয়ায় মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যারকে সাধুবাদ জানাই। আপনার হাত ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ শিক্ষার্থীরা পাক বিশ্বমানের প্রযুক্তিসুবিধা।

ইমরানা বারী
প্রভাষক ও
মেম্বার সেক্রেটারি, ল্যাংগুয়েজ ল্যাব, ইংরেজি বিভাগ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *