কুমিল্লায় মিটার ছাড়াই বিদ্যুৎ বিল এসেছে ৪ হাজার টাকা!

 

জামাল উদ্দিন স্বপন
গেলো কয়েকমাসে সারাদেশেই ভুতুড়ে বিদ্যুৎ বিল নিয়ে হয়েছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা। এর জের ধরে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সম্পদ মন্ত্রণালয়েও রদবদলের ঘটনা ঘটেছে। এরমধ্যেই ঘটেছে অদ্ভুতুড়ে এক ঘটনা। যেখানে বিদ্যুৎের মিটারই নেই, সেখানে বিল এসেছে প্রায় ৪ হাজার টাকা। এমন ঘটনা ঘটেছে কুমিল্লার স্বপ্নছায়া হাউজিং সোসাইটির এক বাসিন্দার বাসায়।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যক্তি জানান, নিজের নবনির্মিত তিনতলা বাড়ির তৃতীয় তালায় তারা থাকেন। দোতলার কাজ সম্পূর্ণ না হওয়ায় মিটারের অনুমোদন থাকলেও এখনো মিটার লাগাননি তিনি। অর্থাৎ মিটারে বিদ্যুৎ সংযোগ দেন নি।
কিন্তু এরই মধ্যে গতপরশু (সোমবার) বিদ্যুৎ বিলের কাগজ দেখে চোখ উপরে ওঠার জোগাড় তার। যেখানে মিটারই প্রতিস্থাপন করা হয়নি, সেখানে শুধু গত জুন মাসেই দ্বিতীয় তলার দু’টি ফ্ল্যাটের বিল এসেছে ৪ হাজার টাকা, যেখানে এক ইউনিট বিদ্যুৎও খরচ করেননি তারা।

তিনি আরও জানান, শুধু দোতলা এবং তিনতলা মিলে প্রায় ৮ হাজার টাকার মতো বিল এসেছে তার।
তবে, এমন চিত্র শুধু তার এখানেই নয়। কুমিল্লায় গেলো ৩ মাসের বিলে অনেকেরই হিসেব মেলেনি। অভিযোগ আছে, ব্যবহৃত ইউনিটের তুলনায় বিল বেশী এসেছে অনেকেরই। এ নিয়ে কুমিল্লার স্থানীয় সহ জাতীয় গণমাধ্যমগুলোতেও খবর প্রকাশিত হয়েছে।
এসব বিষয়ে জানতে কুমিল্লা বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-১) এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. শাহ রেওয়াজ মিঞার সঙ্গে কথা হলে, তিনি বিষয়টি আমলে নিয়ে সমাধান করার আশ্বাস দেন।
তিনি বলেন, ‘কিভাবে এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে তা সংশ্লিষ্টদের ডেকে খতিয়ে দেখছি। আশা করছি, সমধান হয়ে যাবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *