1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ১২:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পাবনা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনের অযৌক্তিক ভাড়া নির্ধারণের প্রতিবাদে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু অধ্যবসায়ী নেতা ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ ঊনপঞ্চাশটি মোবাইল ফোনসহ পোনে এক লক্ষ টাকা উদ্ধার চুয়াডাঙ্গায় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এর ৯২তম জন্মদিন উপলক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পন সহকারী অধ্যাপক হিসাবে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ দিচ্ছে বশেমুরবিপ্রবি শিবচরে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ঝালকাঠিতে শেখ কামাল’র জন্মবার্ষিকী পালিত বরগুনার তালতলীতে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন রংপুর চিড়িয়াখানায় জলহস্তি নুপুর ও কালাপাহাড় জুটির প্রথমবার বাচ্চা প্রসব রংপুরে অনুমোদনহীন ঔষধ কারখানায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান ঔষধ জব্দসহ অর্থদন্ড পাবনা ফরিদপুরে সন্ত্রাসীদের গ্রামবাসীর গণপিটুনি

সাতদিনেই পদ্মার পেটে সেই সাইক্লোন সেন্টার

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০
  • ৯৩ বার

চাঁদপুর : চাঁদপুরের রাজরাজেশ্বর ইউপিতে অবস্থিত তিনতলা ওমর আলী স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টারটি অবশেষে পদ্মার পেটে ডুবে গেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে জোয়ারে এটি ডুবে যায়।

প্রতিবছর পদ্মার অব্যাহত ভাঙনে দিশেহারা হয়ে পড়েন রাজরাজেশ্বর ইউপির বাসিন্দারা। ভিটেবাড়ি হারিয়ে এমন অনিশ্চয়তায় দিন শুরু হয় তাদের।

এবছরও পদ্মার ভাঙন থেকে মুক্তি মিলেনি এই এলাকার বাসিন্দাদের। গত এক সপ্তাহে রাজরাজেশ্বর ইউপির প্রায় ৫ শতাধিক বসতবাড়ি নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে। যাদ যায়নি ফসলি জমি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানসহ ছোট-বড় বাজার।

এর আগে ১৭ জুলাই নদীগ্রাসের মুখে পড়ে তিনতলা রাজরাজেশ্বর ওমর আলী হাই স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টারটি। এক সপ্তাহ পর আজ বৃহস্পতিবার এটি পুরোপুরি নদীতে বিলীন হয়ে যায়।

ওমর আলী স্কুলের প্রধান শিক্ষক সুফিউল্লাহ জানান, ওমর আলী উচ্চ বিদ্যালয়টি প্রায় ১১ বার নদী ভাঙনের শিকার হয়েছে। ২ কোটি ২৯ লাখ টাকা ব্যায়ে এখানকার শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া এবং ইউনিয়নবাসীর কথা চিন্তা করে এখানে আধুনিক স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টারটি নির্মাণ করা হয়। কিন্তু তীব্র ভাঙনের কারণে আজ সেটিও পদ্মার পেটে চলে গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, প্রতি বছর নদী ভাঙনে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হই। চাঁদপুরে রাজরাজেশ্বর ইউপি একটি দুর্গম এলাকা। পদ্মার ভয়াল থাবায় বিলীন হয়ে গেছে পুরো চর। সরকার আমাদের দিকে না তাকলে আমরা কোথায় গিয়ে আশ্রয় নিবো।

রাজরাজেশ্বর ইউপি হাজী হযরত আলী বেপারী জানান, প্রবল স্রোতের কারণে রাজরাজেশ্বর ইউপির চর এলাকায় ভাঙনের মুখে পড়ে। যে কারণে স্কুলসহ বসতঘর এরই মধ্যে বিলীন হয়ে গেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..