ভূয়া সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় প্রতারনার অভিযোগে ডিবি পুলিশের হাতে ২জন আটক।

আঃজলিল,বিশেষপ্রতিনিধিঃ

সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে শাহাদৎ হোসেন ওরফে শাহা ওরফে শাহদত জামান ওরফে কনস্টেবল জামান ওরফে সচিব মঞ্জুরুল ইসলাম ওরফে সচিব গোলাম কিবরিয়া (৫২) নামে এক ব্যক্তি ও তার স্ত্রী নাজমা বেগমকে (৪০) আটক করেছে যশোর ডিবি পুলিশ।

শুক্রবার ভোরে তাদেরকে শেরপুর জেলার শ্রীবরদী থানার বালিয়াচণ্ডি গ্রাম থেকে আটক করা হয়।

আটক শাহাদৎ ওই গ্রামের মৃত লতিফ মাস্টারের ছেলে। এসময় তাদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহার করা চারটি মোবাইল ফোন আটটি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়।

শনিবার দুপুরে যশোর পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এই তথ্য দেন পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাহউদ্দিন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানি ও ডিবির কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার জানান, ২০১৩ সাল থেকে শাহদৎ হোসেন বিভিন্ন জেলায় সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তার কাছ থেকে প্রতারণা করে এবং সাধারণ মানুষকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে অর্থ হাতিয়ে আসছেন। এই তথ্য যশোর জেলা পুলিশের নজরে এলে কোতয়ালী থানায় একটি জিডি করা হয়। এরপর ডিবির এসআই মফিজুল ইসলাম মিথ্যা পরিচয়দানকারী শাহাদৎ হোসেনকে শনাক্ত করেন এবং ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত ওসি সোমেন দাসের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে তাদের শেরপুর থেকে আটক করেন

Leave a Reply

Your email address will not be published.