প্রবল ঢেউয়ে ধসে পড়ছে রৌমারী টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ

মাসুদ রানা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি : চলতি বন্যায় কুড়িগ্রামের রৌমারীতে গাইড ওয়ালের
অভাবে পানির তোড়ে রৌমারী টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের চারটি শ্রেণি কক্ষসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গ্রন্থাগার ধসে পড়েছে। ফলে অফিসিয়াল সকল কার্যক্রম ব্যাহত রয়েছে। এতে করে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক ও শিক্ষার্থী। এপর্যন্ত জরুরি পদক্ষেপ না নেওয়ায় ১৫
জুলাই হতে ক্রমান্বয়ে ধসে পড়ছে অবশিষ্ঠ শ্রেণি কক্ষ গুলো।

রৌমারী টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক এসএম হুমায়ুন কবির জানান, বতর্মান সরকার কারিগরি শিক্ষার দিকে ব্যাপক গুরুত্ব দেওয়ায় রৌমারী উপজেলার আনাচেকানাচে থেকে আসা শিক্ষার্থীর পরিমাণ প্রায় একহাজার। এই প্রতিষ্ঠানটির চারদিকে জলাশয় ও নীচু ভূমি থাকায় বন্যাকালিন সময়ে ব্যাপক হুমকির মুখে পড়ে বিদ্যালয়টি। এবছর বন্যায় প্রবল ঢেউয়ের আঘাতে
বিদ্যালয়টির একটি ঘর ধসে পড়ে যায়। এতে করে ক্ষতিগ্রস্থ হয় ১২ লক্ষাধিক টাকা।

তিনি আরো জানান, ২০০২ সালে প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠিত হলেও আজ পর্যন্ত শিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে কোন দালানের বাজেট মেলেনি। ২০১৮ সালে শিক্ষা প্রকৌশলী অধিদপ্তরের বরাদ্দকৃত পাঁচ লক্ষ টাকা ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব অথার্য়নে এই ধসে পরা ঘরটি নির্মাণ করা হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটির এই দুরবস্থার কথা ইতোমধ্যে উপজেলা শিক্ষা কর্মকতার্কে অবহিত করা হয়েছে।

এব্যাপারে রৌমারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এবিএম নকিবুল হাসান বলেন, প্রতিবছরের ন্যায় এবারো বন্যায় উপজেলার বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিভিন্নভাবে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে এবং উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কার্যালয়ের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ঠ উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.