1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২:১৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
উদ্বাস্তু পুনর্বাসনে বঙ্গবন্ধু অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন: ড.কলিমউল্লাহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্নচারী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ বিজিবির রাতভর অভিযানে ভোরে ৯ গরু জব্দ, আরো ৫১টি গরু পাহাড়ে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন,ভুয়া এমবিবিএস ও এমডি পদধারী প্রতারক ডাক্তার আটক র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসকারীদের জন্য ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ঈদগাঁও বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ! বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হারাগাছ সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত। রংপুরের গংচড়ায় বিধবা ভাতা ও একটি টিনের ঘরের জন্য আকুতি জানিয়েছেন রুনা লায়লা গ্লোবাল টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসী মুন্নার গ্রেফতারের দাবিতে সাভারে বিভিন্ন কর্মসূচী

করোনা জয় করে আবারো স্বাস্থ্যসেবা দিতে পিছিয়ে নেই স্বাস্থ্যবন্ধু ডা. মিজানুর রহমান কবির

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০
  • ২০৯ বার

 

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, হাওর অঞ্চল প্রতিনিধি :

প্রাণঘাতী করোনা জয় করে আবারো স্বাস্থ্যসেবা দিতে পিছিয়ে নেই কিশোরগঞ্জ জেলার বন্দরনগরী ভৈরব উপজেলার বহুল আলোচিত গরীব দুঃখী মানুষের প্রিয় মূখ স্বাস্থ্যবন্ধু ডা. মুহাম্মদ মিজানুর রহমান কবির।

প্রাণঘাতী কোভিড -১৯ করোনা ভাইরাস এদেশে ছড়িয়ে মহামারী আকার রুপ নিলেও চিকিৎসা সেবা দিতে পিছপা হননি জনদরদী ওই চিকিৎসক। সুরক্ষা সরাঞ্জামাদী ব্যবহার করে নিজ চেম্বারে বসে প্রতিদিন রোগীদের সেবা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। করোনা জয় করার পর আবারো করোনা ভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি আছে জেনেও ঘরে বসে নেই জনদরদী চিকিৎসক ডা. মুহাম্মদ মিজানুর রহমান কবির।

তিনি স্বাস্থ্য সুরক্ষা (পিপিই) পড়ে আবারো প্রতিদিন নিয়মিত ভৈরব বাজারে নবী ফার্মেসী ও কমলপুর সেন্ট্রাল হাসপাতালে তাঁর দুটি চেম্বারে বসে রোগী দেখে যাচ্ছেন। তিনি ভৈরব সহ আশপাশ এলাকার মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রয়েছেন। পাশাপাশি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ভৈরবের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যসেবীদের সুরক্ষা সামগ্রী মাক্স, হ্যান্ডগ্লাবস্ সহ বিভিন্ন উপকরণ প্রদানের ক্ষেত্রেও ভুমিকা পালন করেছেন।

ভৈরব উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ও ভৈরব সেন্ট্রাল হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মুহাম্মদ মিজানুর রহমান কবির বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি থাকার পরও দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে পেরে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। আমি মানুষের ভালবাসার মাধ্যমে তাদের সুখে দুখে সাথী হতে চাই। দেশের মানুষ গুলো যেন ভালো থাকে এটাই আমার চাওয়া পাওয়া। সবার কাছে দোয়া চাই দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে আমি একজন চিকিৎসক হিসেবে গরীব দুঃখী মানুষের স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারি। মানব সেবার ব্রত নিয়ে এ পেশায় এসেছি করোনা ভাইরাসের ভয়ে ঘরে বসে থাকার জন্য নয়, আসুন সবাই মিলে করোনা ভাইরাসকে প্রতিরোধ করে সবাইকে সুস্থ রাখার চেষ্টা করি।

দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে জনদরদী ডা. মুহাম্মদ মিজানুর রহমান কবিরের এ মহান উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে ইতি পূর্বেই ভৈরব সহ আশপাশ এলাকার মানুষ তাকে স্বাস্থ্যবন্ধু উপাধী দিয়েছেন।

কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জনগণের চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ভৈরব উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক, সেন্টাল হাসপাতাল ভৈরব এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ভৈরব প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক, ভৈরবের প্রিয় মুখ, জনদরদী, স্বাস্থ্যবন্ধু, ভৈরবের গর্ব, করোনা যোদ্ধা ডা. মুহাম্মদ মিজানুর রহমান কবির করোনা বিজয়ী হয়ে মহান আল্লাহ পাকের অশেষ মেহেরবানীতে পরিপূর্ণ সুস্থ হয়ে সকলের মাঝে আবার ফিরে এসে প্রতিনিয়ত তার চেম্বারে বসে রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। করোনার প্রথম দিক থেকেই তিনি স্বাস্থ্য সোবা দিয়ে আসছেন। অফলাইন ও অনলাইনে সচেতনতার ব্যাপারে তার অবদান অপরিসীম। ভৈরবকে নিরাপদ রাখার জন্য নিজের অবস্থান থেকে তিনি প্রতিনিয়ত চেষ্টা চালিয়ে গেছেন। তিনি যেন সুস্থ অবস্থায় সব সময় অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের সেবা দিয়ে যেতে পারেন এবং হতদরিদ্র অসহায় রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা দিতে পারেন এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে ভৈরবের অনেকেই।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..