1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উদ্বাস্তু পুনর্বাসনে বঙ্গবন্ধু অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন: ড.কলিমউল্লাহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্নচারী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ বিজিবির রাতভর অভিযানে ভোরে ৯ গরু জব্দ, আরো ৫১টি গরু পাহাড়ে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন,ভুয়া এমবিবিএস ও এমডি পদধারী প্রতারক ডাক্তার আটক র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসকারীদের জন্য ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ঈদগাঁও বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ! বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হারাগাছ সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত। রংপুরের গংচড়ায় বিধবা ভাতা ও একটি টিনের ঘরের জন্য আকুতি জানিয়েছেন রুনা লায়লা গ্লোবাল টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসী মুন্নার গ্রেফতারের দাবিতে সাভারে বিভিন্ন কর্মসূচী

বাবুগঞ্জ থানা ওসির গল্প

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০
  • ১২৯ বার

রাইতুল ইসলাম রাজীব, বাবুগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বরিশাল বাবুগঞ্জে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ মিজানুর রহমানের কথা বলছি।

বরিশালের বাবুগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের বাবুগঞ্জ থানায় যোগদানের পর থেকেই পাল্টে গেছে বাবুগঞ্জ উপজেলার প্রেক্ষাপট। ওসি হিসেবে দায়িত্ব নেয়ার পরই তিনি সাঁড়াশি অভিযান শুরু করেন মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও অস্ত্রবাজদের বিরুদ্ধে। পুলিশের জালে আটক হতে থাকে বিপুল পরিমাণ মাদক ও মাদক কারবারীদের রাঘববোয়ালরা।

আতঙ্কে এলাকা ছাড়তে থাকে অপরাধ জগতের সাথে জড়িত সন্ত্রাসীরা। শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারীদের বিরুদ্ধে নেয়া হয় আইনি ব্যবস্থা। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিবাদে জড়িয়ে পড়া উভয় পক্ষকেই নিয়ে আসা হয় আইনের আওতায়। গ্রেপ্তার করে পাঠানো হয় বিজ্ঞ আদালতে। ফলে কমতে থাকে থানা এলাকাজুড়ে সংঘাত-সংঘর্ষ। শুধু তাই নয় বাবুগঞ্জ থানায় বেশ কয়েকটি পয়েন্টে পরিবহন ও অটো ভ্যান, আলফা, থেকে উত্তোলিত চাঁদা বন্ধের ব্যাপারে তিনি কঠোর ভূমিকা পালন করেন।

মহামারী করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে সরকারি বিধি নিষেধ বাস্তবায়নে দিন-রাত পরিশ্রম করেন ও নিজ অর্থায়নে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন। শুধু আইন প্রয়োগই নয় ওসির উদ্যোগে করোনাকালীন সময়ে লকডাউনের কারনে অসহায়, দুস্থ, গরিব, কর্মহীন ও খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে নিজ উদ্যোগে থানাব্যাপী প্রায় ২০০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী উপহার প্রদান করেন। এছাড়াও মামলা, অভিযোগ দায়ের ও জিডি, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, ভেরিফিকেশন রিপোর্ট করতে আসা জনসাধারণ কে আর্থিক লেনদেন মুক্ত থেকে পুলিশি সেবা প্রদানে শতভাগ স্বচ্ছতা নিশ্চিত করেছেন।

তাছাড়া মাদকসেবীদের অন্ধকার থেকে আলোর পথ ও কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরী করে দিয়েছে। অসহায় বৃদ্ধের চিকিৎসার ভার এবং এলাকার যুব সমাজকে ক্রীড়ামুখী করেছেন থানার ওসি মোহাম্মাদ মিজানুর রহমান।

তিনি জানিয়েছেন, থানা কে মাদক, সন্ত্রাস, চুরি,ছিনতাই ও চাঁদাবাজ মুক্ত রাখতে আমার প্রয়াস অব্যাহত থাকবে। এজন্য তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..