1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম শারীরিক সম্পর্কের পর টাকা না দেওয়ায় ৩ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

রংপুরে অটোচালক হাফিজুর রহমান হত্যাকান্ডের ঘটনায় আদালতে ৫ আসামীর দায় স্বীকার

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ১০৮ বার

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর থেকে :  মামলার দায়িত্ব পাওয়ার ৫১ দিনে অটোচালক হাফিজুর রহমান (১৮) হত্যাকান্ডের রহস্য উদ্ঘাটন করেছে রংপুর জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। এ ঘটনায় হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত ৫ আসামী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। ছিনতাই হওয়া অটোরিক্সাটি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রংপুর জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারী মিঠাপুকুর উপজেলার খোড়াগাছ ইউনিয়নের উত্তরপাড়া পাঁঁচঘরিয়া গ্রামের সাইফুল ইসলামের আম বাগানে রংপুর নগরীর কেরানীপাড়ার আলম মিয়ার ছেলে মোঃ হাফিজুর রহমানের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় মামলা হলে মিঠাপুকুর থানা পুলিশ তদন্ত শুরু করে।

মামলার অগ্রগতি না হওয়ায় গত ২১ জুন পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমারের নির্দেশে মামলাটি স্থানান্তর করা হয় জেলা গোয়েন্দা শাখায়। গোয়েন্দা বিভাগের এসআই মনিরুজ্জামান তথ্য প্রযুক্তির সহযোগিতায় হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামী রংপুর নগরীর সাতগাড়া সবুজপাড়ার মোঃ ফরহাদ হোসেন, দূর্গাপুর বড়বাড়ির মোঃ জাহাঙ্গীর আলম ওরফে কলক, অটোরিক্সা ক্রয়-বিক্রয়ের সাথে জড়িত গুড়াতিপাড়ার সাজেদুল ইসলাম সাজু, মিঠাপুকুর ভাংনী বাজারের মোঃ সুলতান মিয়া এবং সংগ্রামপুরের সোহেল রানা ওরফে বাবুকে গ্রেফতার করে। সেই সাথে রংপুর নগরীরসহ জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে লুন্ঠিত অটোরিক্সাটি উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ।

হাফিজুর রহমান হত্যাকান্ডের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া ৫ আসামী সোমাবার রংপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মিঠাপুকুর আদালতে তোলা হলে বিচারক ফজলে এলাহীর কাছে তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন।

হত্যাকান্ডের ঘটনা বর্ণনায় আসামীরা বলেন, ২০ ফেব্রুয়ারী ফরহাদ, সুলতান ও কলক ৩ বন্ধু বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘুরতে যান। এক পর্যায়ে তারা অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে যান। সেখানে হাফিজুরের অটোরিক্সায় করে রংপুর নগরী থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে মিঠাপুকুর খোড়াগাছ ইউনিয়নের নির্জন জায়গায় যায়।

পথের মধ্যে তারা হাফিজুরকে অবচেতন করার জন্য গোপনে কোমল পানীয়র সাথে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে খাইয়ে দেয়। এতে হাফিজুর কিছুটা দূর্বল হয়ে পড়ে। খোড়াগাছ ইউনিয়নের নির্জন রাস্তায় চার্জার অটো রেখে তারা হাফিজুরকে পার্শ্ববর্তী আমবাগানে নিয়ে গলা কেটে হত্যা করে ছিনতাই করে।

রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুল আলম বলেন, মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তর করার পর আমরা দ্রুততার সাথে মামলাটি নিস্পত্তি করতে সক্ষম হয়েছি। রংপুর জেলার বিভিন্ন অপরাধ দমনে কাজ করে যাচ্ছে ডিবি পুলিশ। এ জেলা থেকে অনিয়ম, অপরাধ নির্মূলে সাধারণ মানুষের সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..