1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম শারীরিক সম্পর্কের পর টাকা না দেওয়ায় ৩ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

বাঁশখালীতে মেয়র মুক্তিযোদ্ধা শেখ সেলিমুল হক চৌধুরীর উপর হামলা মামলার প্রতিবাদে মানববন্দন

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৩২৫ বার

মোঃ আনোয়ার, বাঁশখালী (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধি :  চট্রগ্রামের বাঁশখালীতে পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ সেলিমুল হক চৌধুরীর উপর হামলা ও দায়েরকৃত মিত্যা মামলা প্রত্যেহারের দাবীতে,পৌর কাউন্সিলর এবং সার্ভিস এসোসিয়েশনের উদ্যোগে এক মানববন্দন প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিত হয়েছে। বুধবার(২৮ আগস্ট) পৌরসভা চত্বরে সকাল ১০ টার সময় এ মানববন্দন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্টিতহয়। প্যানেল মেয়র দেলওয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে ও পৌর কর্মকর্তা মোঃ শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত মানববন্দনে প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন,১নং ওয়ার্ড় কাউন্সিলর আবদুর রহমান।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন, কাউন্সিলর তপন বড়ুয়া, কাউন্সিলর জমশেদ আলম,কাউন্সিলর আজগর হোসেন,কাউন্সিলর নজরুল কবির শিকদার,মহিলা কাউন্সিলর রুজিয়া সোলতানা,কাউন্সিলর দিলীপ,নারগিস আক্তার,বাবলা কুমার দাশ,প্রকৌশলী ইসমাইল হোসেন ভুইয়া,কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম,বাবুল কান্তি বডুয়া, মোঃ রোবেল প্রমুখ। এই সময় বক্তারা বলেন,পৌর মেয়র শেখ সেলিমুল হক চৌধুরীও একজন মুক্তিযোদ্ধা এবং জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান,একজন দেশপ্রেমিক মুক্তিযোদ্ধা কখনো কোনদিন অপর মুক্তিযোদ্ধার উপর হামলা চালাতে নির্দেশ দিতে পারেনা,মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নাম দিয়ে দুষ্কৃতিকারীরা পরিকল্পিত ভাবে, মুক্তিযোদ্ধা মেয়র শেখ সেলিমুলহকের উপর হামলা চালিয়ে তাহাকে মারত্বক ভাবে আহত করেছে।

বাঁশখালীর সংসদ আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীর সহযোগীতায় যে উন্নয়ন হচ্ছে সে উন্নয়নের অগ্রযাত্রাকে ভঙ্গুর করার লক্ষে কতিপয় সার্থেন্ষি মহল কুচক্র দিয়ে মেয়রকে আঘাত করেছে। তারা তাতেও কান্ত হয়নি আবার মিত্যা মামলাও জড়িয়ে দেয়। বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন,অনতিবিলম্বে দায়েরকৃত মিত্যা মামলা প্রত্যেহার করা নাহলে, সমগ্র পৌরবাসীকে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেয়া হবে বলে ঘোষণা দেন। পরি শেষে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে, কাউন্সিলর আবদুর রহমান আজকের মতো সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..