1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভৈরবে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন সুজন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম

পুলিশের প্রতি এই আস্থাহীনতার জন্য দায়ী কে?

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৮ আগস্ট, ২০২০
  • ২৩৭ বার

..……………..ফাহাদ চৌধুরী দিপু……………

সন্তানের লাশের পাশে পরি। বারের কান্না আত্রনাদ 😭অথচ কিছু পুলিশ ব্যস্ত ছিল ডিউটি শেষ ..সুরুতহাল করতে ও টাকা গ্রহন !!বাস্তবে ঘটেছিল !!আবার দেখেছি সৎ পুলিশ অফিসার যিনি ৪৮ ঘন্টার মধ্য হত্যাকারীদের চিন্হিতকরেছেন ।গ্রেফতার করে সত্য উৎঘাটন করেছেন ।
বেশীর ভাগ ঘটে উল্টোচিত্র … তারপর ও আমরা আশায় বুক বাধি (ছেলে কখন মানুষের মত মানুষ হবে ) অমানুষ নহে …

মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান ( অবঃ) হত্যার পর থেকে পুলিশের বিরুদ্ধে এমন এমন অভিযোগ বের হয়ে আসছে, যা রীতিমতো পুলিশ বাহিনীকে দেশের মানুষের কাছে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলছে। একই সাথে পুলিশের তদন্ত কার্যক্রমের নিরপেক্ষতা, ১৬৪ ধারার জবানবন্দি ও রিমান্ড নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।
জনমনে সন্দেহ তৈরি হয়েছে, অটোরিকশাচালক রকিব (১৯), আবদুল্লাহ্ (২২) ও নৌকার মাঝি খলিলের (৩৬) মত আর কত নিরপরাধ মানুষকে অপরাধী বানিয়ে জেলে পাঠিয়েছে পুলিশ কিংবা কতোজন নিরপরাধ মানুষকে ফাঁসি কিংবা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে? আর পুলিশের রিমান্ডেই বা কি ধরনের পাশবিক নির্যাতন করা হয় যে, নির্দোষ মানুষও নিজেকে দোষী বলতে বাধ্য হয়?

নারায়নগঞ্জের প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণের পরে হত্যা, শীতলক্ষ্যা নদীতে লাশ ভাসিয়ে দেওয়ার অভিযোগে যে তিনজনকে আটক করার পর ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি নিয়ে জেলে পাঠানো হয়, সেই অটোরিকশাচালক রকিব (১৯), আবদুল্লাহ্ (২২) ও নৌকার মাঝি খলিলের (৩৬) পরিবার থেকেও ঘুষ নিয়েছিলেন তদন্তকার্যে দায়িত্বে থাকা নারায়নগঞ্জের এসআই শামীম। মেয়েটি ফিরে আসার কারণে এআআই শামীম এখন পড়েছে মহাবিপদে। তাকে এখন ভোগ করতে হচ্ছে প্রাকৃতিক শাস্তি। এখন তিনটি পরিবারের কাছ থেকে নেওয়া ঘুষের টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য ঘুরছেন তিনি।

ইতোমধ্যে ১ টি পরিবারের ৬ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছেন। বাকি পরিবারগুলো টাকা ফেরত নেননি। ঘুষের টাকা ফেরত দিতে চাওয়ার তথ্য প্রকাশ করে দিয়েছেন। এতে এসআই শামীম আরও বিব্রত হয়ে পড়েছে, এক এসআই শামীমের কাণ্ড বিব্রত করেছে পুরো পুলিশ ডিপার্টমেন্টকে।

হ্যান্ড স্যানিটাইজড করে ঘুষ নেওয়া, ৫০ লাখ টাকা না পেয়ে প্রবাসীকে হত্যা, সিফাতের মুক্তির প্রোগ্রামে লাঠিচার্জ না করায় নিজের সহকর্মীকে থাপ্পড় মারা, পল্লবী থানায় বোমা নাটক করা, উখিয়া থানায় ওসি মর্জিনার নারী নির্যাতন ও ওসি প্রদীপের কুকর্মের সহযোগী হওয়া, একজন মাকে নিয়মিত ধর্ষণের পরে ভিডিও দেখালে ছোট ছেলের আত্মহত্যা ইত্যাদি ঘটনাগুলোর প্রকাশ যেন পুলিশের সব ভাল কাজকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।
করোনাকালে জনসেবা করতে গিয়ে পুলিশ সদস্যদের মৃত্যু, আক্রান্ত হওয়ার মত ঘটনাকে ঢেকে দিচ্ছে পুলিশের বিরুদ্ধে প্রকাশ হওয়া এই খারাপ সংবাদগুলো।

পুলিশের প্রতি এই আস্থাহীনতার জন্য দায়ী কে? পুলিশের এই কাজ গুলো কি কোন অন্যায় নয়?

এই অন্যায় করার জন্য ন্যূনতম কোন সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে? কেন এসব ঘুষ, নিরপরাধ মানুষকে দোষী বানানো, ক্রসফায়ার দেওয়ার জন্য পুলিশকে দোষী করা হচ্ছে না??কেন করা হচ্ছে প্রত্যাহার!!!!

আমাদের আস্থা ভালোবাসা ভরসার জায়গা পুলিশ বাহিনী ।

তাই ওসি প্রদীপের মত বিনা অপরাধে মানুষ হত্যাকারী ও অসৎ পথে ২০০০ কোটি টাকা উপার্জন করা পুলিশ গুলোকে চিন্হিত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করে পুলিশবাহিনীকে ঢেলে সাজানো আজ সময়ের দাবি সাধারন জনগনের …

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..