1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভৈরবে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন সুজন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম

আধুনিক জ্ঞান- বিজ্ঞান ও মননশীলতার পথপ্রদর্শক

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৯৭ বার

বিশ্ববিদ্যালয় উন্নত দেশ গঠন ও উচচ শিক্ষা বিস্তারের গুরুত্বপূর্ণ বাহন। একটি জাতির মেধা ,মনন ও ইতিহাস ঐতিহ্য ধারণ ও সভ্যতার লালনপালনকরী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। সভ্যতার সূতিকাগার হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়কে সভ্যতা ও সংস্কৃতির আদিগন্ত আবিষ্কার করতে গ্ৰন্থাগার প্রধান নিয়ামক শক্তি হিসেবে কাজ করে। গ্ৰন্থাগারের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়ন ও বিকাশ কল্পনা করা যায় না।
২০১৭ সালের ১৪ ই জুন উত্তরবঙ্গের অন্যতম শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর এর চতুর্থ উপাচার্য হিসেবে প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বিএনসিসিও স্যারের দায়িত্ব গ্ৰহনের পর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘কেন্দ্রীয় গ্ৰন্থাগার ও তথ্য কেন্দ্রে আধুনিকতা ও মননশীলতার ছোঁয়া লাগে। তিনি গ্ৰন্থাগারটিকে জ্ঞান- বিজ্ঞান চর্চার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত করতে যুগোপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। মাননীয় উপাচার্য মহোদয় দায়িত্ব গ্ৰহনের পর থেকেই গ্ৰন্থাগারের সংগ্রহ বৃদ্ধির উপর গুরুত্বারোপ করেন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর তাঁর সময়েই দ্বিতীয়বারের মতো গ্ৰন্থাগারটির জন্য বিপুল সংখ্যক পুস্তক, গবেষণা সাময়িকীসহ অন্যান্য পঠন সামগ্ৰী ক্রয় করা হয় যা গ্ৰন্থাগারটির উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি সাধনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। স্যার গ্ৰন্থাগারটিতে মুক্তিযুদ্ধ গ্যালারি স্থাপনসহ ‘মুক্তিযুদ্ধ ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্নার’ স্থাপন করেন যা মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর উপর গবেষণার দিগন্ত উন্মোচন করেছে। গ্ৰন্থাগারে ইউজার টার্মিনাল স্থাপন স্যারের ডিজিটাল মননশীলতার পরিচয় বহন করে। ১২ টি কম্পিউটার ও অন্যান্য প্রযুক্তি সুবিধা সম্বলিত টার্মিনাল কক্ষটিতে শিক্ষার্থীদের নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট সেবা প্রদানসহ ই-বুক ,ই- জার্নালসহ যাবতীয় তথ্য সেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। স্যারের বিশেষ উদ্যোগে গ্ৰন্থাগারটিতে প্রথমবারের মতো বিভিন্ন অনলাইন জার্নাল (Emerald, IEEE, JSTOR) ক্রয় করা হয় যা গ্ৰন্থগারটির ডিজিটাল যুগে প্রবেশের অগ্ৰযাত্রা হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে। এছাড়াও মাননীয় উপাচার্য মহোদয় চাকরি প্রত্যাশী শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে ‘ জব কর্নার’ স্থাপন করেন যা বিসিএস পরীক্ষাসহ অন্যান্য সরকারি চাকরির প্রস্তুতি গ্ৰহণে শিক্ষার্থীদের সাহায্য করছে। স্যার গ্ৰন্থাগারটির সার্বিক কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার জন্য নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা করেছেন। অতি সম্প্রতি, মাননীয় উপাচার্য মহোদয় পুরো গ্রন্থাগারটিকে কেন্দ্রীয় শীততাপ নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থাপনার আওতায় নিয়ে আসার প্রশংসনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন যার টেন্ডার বিজ্ঞপ্তি ইতোমধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।
বাংলাদেশে উচ্চ শিক্ষার প্রসার ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গুনগত মান আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে উন্নীত করনে যেসকল বুদ্ধিজীবী নিরলসভাবে প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন তাদের মধ্যে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় রংপুর এর মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ বিএনসিসিও স্যার অন্যতম। স্যারের নিবিড় পর্যবেক্ষণে গড়ে ওঠা বিশ্ববিদ্যালয়টি একদিন বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে, ইনশাআল্লাহ।

লেখক- মোঃ আকতারুল ইসলাম
লাইব্রেরি অফিসার/ ক্যাটালগার ,
সেন্ট্রাল লাইব্রেরি এন্ড ইনফরমেশন সেন্টার
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..