1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভৈরবে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন সুজন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম

এসডিজি লক্ষ্য বাস্তবায়নে গ্রামীণ সংগ্রামী মানুষ ও তাদের পেশাগত বৈচিত্রায়ন

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৯৪ বার


বিশেষ প্রতিনিধি– মোঃ খোরশেদ আলম

সৃষ্টির আদি লগ্ন থেকে মানুষ পেশাগত পরিচয় বহন করে আসছে। বর্তমান আধুনিক সমাজ ব্যবস্থায়ও রয়েছে পেশাগত বৈচিত্রায়ন। অর্থনীতিতে মানুষের আচার আচরণ নিয়ে আলোচনা করার সাথে সাথে শ্রেণিসংগ্রাম ও মানুষের পেশাগত বৈচিত্রায়ন এর কথাও বলা আছে। রাষ্ট্র-দেশ-সমাজ তথা পরিবার পরিচালনা করতে হলে সকল পেশার মানুষের অবদান প্রয়োজনীয়। বর্তমানে আমাদের যে গ্রামীণ আধুনিক সমাজ ব্যবস্থা রয়েছে তার মূলে রয়েছে পেশাগত বৈচিত্রায়ন।
কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলার ৯ নং মাইজখার ইউনিয়ন এর ৭ নং ওয়ার্ড এর অন্তর্ভুক্ত কামারখোলা গ্রামে যে সমাজ ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে তাতেও রয়েছে উক্ত সমাজের মানুষের পেশাগত বৈচিত্র ও নানাবিধ পেশা। মানুষের সৃষ্টি হতে আজ পর্যন্ত যত ধরনের পেশা রয়েছে তার প্রায় সবকটি পেশাই কামারখোলা গ্রামে রয়েছে। গ্রাম বাংলার সমাজ ব্যবস্থায় গভীর নলকূপ বসানো তার মধ্যে একটি। কামারখোলা গ্রামে ৫-৬ জনের একটি কর্মজীবী সংঘ পেশা হিসেবে এই গভীর নলকূপ বসানোর কর্মকে বেছে নিয়েছেন। কামারখোলা গ্রামের আশেপাশের প্রায় দশটি গ্রামে এই কর্মজীবী সংঘ গভীর নলকূপ বা ডিপ টিউবওয়েল বসানোর কাজটি করে থাকেন। ডিপ টিউবওয়েল বসানোর জন্য যে ধরনের উপকরণ প্রয়োজন তা ক্রয় করার জন্য কামারখোলা গ্রামের নিকটস্থ রামমোহন বাজারে অবস্থিত রয়েছে এরকম প্রায় ১০ টি দোকান। এসব দোকান মালিক সমিতির সভাপতি বশির আহমেদ সংবাদদাতাকে জানান- “আমাদের ডিপ টিউবওয়েল বসানোর কাজে যে কর্মজীবী মানুষ নিযুক্ত রয়েছেন তাদের আয়-রোজগার দিয়ে প্রায় ২০০ টি পরিবার বেঁচে আছেন।”
কামারখোলা গ্রামের গভীর নলকূপ বসানোর যে কর্মজীবী সংঘ রয়েছে, উক্ত সংঘের সভাপতি ইয়াসিন মিয়া সংবাদদাতাকে জানান- “শুধু নতুন গভীর নলকূপ বসানো নয়, পুরাতন গভীর নলকূপ স্থানান্তর করে নতুন গভীর নলকূপ বসানো, অগভীর নলকূপকে সরিয়ে গভীর নলকূপে স্থানান্তর, কৃষি সেচের পাম্প বসানো, আর্সেনিক মুক্ত টিউবওয়েল বসানো সহ পানি সংস্কার বিষয়ক যেকোনো মেরামতের কাজও আমাদের কামারখোলার গভীর নলকূপ বসানো কর্মজীবী সংঘ করে থাকে।”
প্রত্যেকটি পেশাজীবী মানুষের সমাজ বিনির্মাণে অবদান অপরিসীম। ভবিষ্যত আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংক্রান্ত একগুচ্ছ লক্ষ্যমাত্রা -টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (SDGs)-এ জাতিসংঘ যে ১৭ টি টেকসই উন্নয়নের জন্য বৈশ্বিক লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন তার মধ্যে অন্যতম একটি লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে “সুপেয় পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা … সবার জন্য পানি ও পয়ঃনিষ্কাশনের সহজপ্রাপ্যতা ও টেকসই ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা”। সেক্ষেত্রে গ্রামীণ সুপেয় পানির এই ব্যবস্থাপনার জন্য যে পেশাজীবী বা কর্মজীবী শ্রেণি রয়েছেন, ২০৩০ সালের মধ্যে এই এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে তাদের অবদান সর্বাধিক ও অনস্বীকার্য।
আমরা বর্তমান উত্তরআধুনিক সমাজ ব্যবস্থায় বসবাস করলেও সুপ্রাচীন কাল থেকেই আধুনিক-সমাজ বিনির্মাণে উক্ত পেশায় নিযুক্ত মানুষদের অবদানের কথা অস্বীকার করা যাবে না। কামারখোলা গ্রামসহ বাংলাদেশের আটষট্টি হাজার গ্রামে গভীর নলকূপ বসিয়ে আর্সেনিকমুক্ত সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা তথা স্বাস্থ্য উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করা এইসব সংগ্রামী মানুষদের প্রতি রইল শ্রদ্ধা ও শুভেচ্ছা । আধুনিক সমাজ বিনির্মাণে আপনাদের এই ধরনের অবদান মানব সমাজ ভোগ করবে অনন্ত থেকে অনন্তকাল।

“সকল পেশার সংগ্রামী মানুষ তাদের জীবনযুদ্ধে জয়ী হোক”!

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..