1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিএসএনপিএস কমিটি গঠন:সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সাঃ সম্পাদক শামছুল আলম,সহ সাঃ সম্পাদক ছাবির উদ্দিন রাজু গাজীপুর ভবানীপুর এলাকার শামীম টেক্সটাইল মিলে তুলার গুদামে আগুন ‘জলবায়ু পরিবর্তনে ৭১ লাখ বাংলাদেশি বাস্তুচ্যুত’- ডব্লিউএইচও ভৈরবে আলোচিত তানজিনা হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী বিএমএসএফ প্রতিষ্ঠাতার কণ্যা জেরিন এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ লাভ বিএমএসএফ নিজস্ব গঠনতন্ত্রে পরিচালিত ট্রাস্টিনামা দলিলের অন্তর্ভুক্ত নয় -সাধারণ সভায় নেতৃবৃন্দ সামাজিক সংগঠন জাগ্রত সিক্সটিনের উপহার পেল পঙ্গু রহিম মিয়া অভিযাত্রিক সাহিত্য ও সংস্কৃতি সংসদ এর  ২২৬১ তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত রংপুরে কৃষকের মুখে হাসি ফুলকপির  ফলন ভালো  হওয়ায় যশোর সীমান্তে এক কিশোরের সাইকেলে পাওয়া গেল ১৫ পিচ স্বর্ণের বার

চান্দিনায় জেলা মহিলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদকের সংবাদ সম্মেলন

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭৫ বার

 

এম কে আলম, চান্দিনা
কুমিল্লার চান্দিনায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মরহুম কাজী জাহাঙ্গীর আলমকে ফ্রিডমপার্টির কো-অর্ডিনেটর উল্লেখ করে সংবাদ প্রকাশ করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেন পরিবারের সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ।
সোমবার দুপুরে চান্দিনা উপজেলার সংবাদপত্র অফিসে ওই সাংবাদিক সম্মেলন করেন তারা। এসময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মরহুম কাজী জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী কুমিল্লা উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক কাজী সখিনা আলম।
তিনি জানান- গত ৬ সেপ্টেম্বর কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় ‘কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ প্রস্তাবিত কমিটিতে ফ্রিডম পার্টির নেতা-কর্মী’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদে আমার স্বামী মরহুম কাজী জাহাঙ্গীর আলমকে ফ্রিডম পার্টির কো-অর্ডিনেটর ছিলেন বলে উল্লেখ করা হয়। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। প্রকৃত পক্ষে আমার স্বামী ছাত্র রাজনীতি থেকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মী ছিলেন। রাজনৈতিক জীবনে ছাত্রলীগ, যুবলীগ সংগঠন করার পর ১৯৮৭সালে চান্দিনা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৪সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত আমৃত্যু উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া ১৯৯৭সালে চান্দিনা পৌরসভার প্রথম পৌর প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে পৌর চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করেন। আমার বড় ছেলে কাজী গোলাম দস্তগীর পাপন ২০১৩সাল থেকে ২০১৯সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া আমার দেবর বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলম মোস্তফা ২০০৬ সাল থেকে ২০১৯সাল পর্যন্ত পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।
আমাদের পরিবারের প্রতি ইর্ষাণি¦ত হয়ে জেলা আওয়ামী লীগ সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ আলম সাংবাদিকের মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে আমাদের পরিবারের মান-সম্মান ক্ষুণœ করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়েছেন। প্রকৃতপক্ষে ১৯৮৮সালে ফ্রিডম পার্টি আর্বিভূত হওয়ার সময় মহিউদ্দিন আহমেদের পিতা এডভোকেট শহিদুল ইসলাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি থাকা সত্ত্বেও ফ্রিডম পার্টির লিগ্যাল এডভাইজারের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী গোলাম দস্তগীর পাপন, পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলাম মোস্তফা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সদস্য কাউন্সিলর দৌলতুর রহমান, রফিকুল ইসলাম লবু, উপজেলা যুবলীগ সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, কুমিল্লা উত্তর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ আহ্বায়ক কমিটি সদস্য কাজী আখলাকুর রহমান জুয়েল প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..