1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:২২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম শারীরিক সম্পর্কের পর টাকা না দেওয়ায় ৩ বাংলাদেশি গ্রেপ্তার

নবীনগরের পৌর সড়কের অবৈধ বালু ব্যবসায়ীর কাছে জিম্মি সাধারন মানুষ ও চলাচলে বিঘ্ন

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৬ বার

 

এস.এম অলিউল্লাহ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া  প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর এলাকার ২নং ওয়ার্ডের আলমনগর দক্ষিন সড়কের সরকারি রাস্তা দখল করে ড্রেজার ও নিষিদ্ধ টাক্টর দিয়ে বালি কেনা-বেচা করছে এলাকার তাজুল ইসলাম নামে এক প্রভাবশালী।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পৌর এলাকার ২নং ওয়ার্ডের আলমনগর দক্ষিন সড়কের সরকারি রাস্তা দখল করে ড্রেজার ও নিষিদ্ধ টাক্টর দিয়ে বালি কেনা-বেচা করার
কারনে সড়কটিতে সাধারন মানুষ চলাচল করতে গিয়ে প্রতিদিনই দুর্ঘটনা শিকার হচ্ছে।
গতকাল একটি ব্যাটারি চালিত অটো চাকা রাস্তায় থাকা বালিতে ডেবে যাত্রী সহ উল্টে পরে যায়,এ সময় অটোতে থাকা যাত্রীরা গুরুত্বর আহত হয়। পরে তাদের স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, এই বালুর ব্যবসার কারনে এলাকার সব রাস্তা -ঘাট ভেঙ্গে গেছে। আমাদের চলাফেরা করতেও অনেক কষ্ট হয়। এ বিষয়ে কেউ কিছু বলতে গেলে তার রোশানলে পরতে হয়।

স্থানীয় আওয়ামিলীগ নেতা কাউছার আলম শিবু জানান, এই বালু ব্যবসায়ী তাজু ও
বড় বড় ৯টি ট্রাক্টর এলাকার সব রাস্তা ভেঙ্গে ফেলেছে।তার ভয়ে এলাকায় কেউ কিছু বলতে পারে না। আমি গত কিছুদিন আগে তার বিরোদ্ধে সরকারি দুইটি গাছ কাটার লিখিত অভিযোগ করেছি। কিন্তু তার প্রতিকার পাই নাই। আমি তার অবৈধ বালু ব্যবসা সহ এসব বিষয়ে প্রতিবাদ করায় ও সাংবাদিকের কাছে এবিষয়ে বক্তব্য দেওয়ায় সে আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আমার উপর সন্ত্রাসী বাহিনি নিয়ে হামলা করেছে। আমি হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে তার বিরোদ্ধে নবীনগর থানায় অভিযোগ দিতে যাচ্ছি।

এ বিষয়ে প্রভাবশালী বালু ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম বলেন, আমি এখানে ব্যবসা করি,কারো ক্ষতি করিনা। পৌরসভার অনুমতি নিয়ে
অনেক দিন যাবতই আমি এই ব্যবসা করে আসছি ।

এ বিষয়ে নবীনগর পৌরসভার মেয়র এড শিব শংকর দাস বলেন, বালু ব্যবসার অনুমোদন পৌরসভা দেয় না। তিনি যা করছেন তা পৌর সভার আইন বহির্ভূত।

এ বিষয়ে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. ইকবাল হাসান বলেন, আমরা ঘটনাস্থলে লোক পাঠাচ্ছি।তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..