1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ভৈরবে উপজেলা যুবদলের আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন সুজন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ রাজারহাটে বর্ণাঢ্য আয়োজনে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত রাজারহাটে সিংহীমারী উচ্চ বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের অভিযোগ নতুন জঙ্গি সংগঠন পুলিশ সদস্যদের হত্যার মিশনে মাঠে নেমেছে: র‌্যাব বঙ্গোপসাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, কমতে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ভূমিকম্প অনুভূত অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হতে দেশবাসীর প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ফিরোজার সামনে চেকপোস্ট বনানীতে জঙ্গি সন্দেহে একটি আবাসিক হোটেল অভিযান রাজধানীর বাজারে চালের দাম বাড়লেও কমেছে সবজির দাম

বাঁশখালীতে ইয়াবা সেবেনে বাঁধা দিলে বাড়িতে ঢুকে হামলা আহত ২

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৩২ বার

মোঃ আনোয়ার বাঁশখালী (চট্রগ্রাম) প্রতিনিধি
চট্রগ্রামের বাঁশখালীতে পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড় ভাদালিয়া এলাকায় আজ শনিবার বিকাল ৫ টার সময়, মোস্তফালী নামে এক লোক কে লোহার রড় দিয়ে মেরে গুরুতর আহত করা হয়েছে। আহত মোস্তফালীর অভিযোগ, মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় স্থানীয় মাদক ও ইয়াবা ব্যবসায়ী এমরান ও তার সঙ্গীরা আমার ঘরে ডুকে আমাকে এবং আমার ভাতিজার উপর হামলা চালিয়েছেন।
আহত ব্যক্তির নাম মোস্তফালী (৬৫)তিনি পৌর সভার ১ নং ওয়ার্ড় সাইরার বাড়ীর মৃত ইব্রাহীমের পুত্র। স্হানীয় মোস্তাফিজুর রহমান সহ কয়েকজন বলেন,এরা বিভিন্ন জায়গা থেকে কিছু উঠতি বয়সের পোলা নিয়ে এমরান এবং সাইফুল্লাহ কিশোর গেং নামে একটা জোট করেছে,তাদেরকে এলাকায় ধ্বংস গেং নামে ছিনে,তারা করেনা এমন কোনো অপরাধ নেই,যেমন আজকে অহেতুক এমরান, সাইফুল্লাহ চাম্বল ইউনিয়ন থেকে জাহেদকে এবং জলদি পোলা এনে মোস্তফালীর ঘর তছনছ করে তার ঘরের ভিতর ডুকে তাকে এবং তার ভাতিজাকে মেরে রক্তাক্ত করে পেলে রাখে,স্হানীয় লোকজন এসে তাদেরকে উদ্দার করে বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়,সেখানে আঘাত গুরুতর হওয়ায় কর্তব্যরত ডাক্তার উন্নত চিকিসার জন্য চট্রগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে,বর্তমানে সে চট্রগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এবিষয়ে ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রহমান বলেন, এই এমরান সাইফুল্লাহর নামে স্হানীয়দের অনেক অভিযোগ আছে,আমি ঘটনা শুনার সাথে সাথে থানা পুলিকে অবহিত করি ততকনাৎ এসআই আবদুল জলিল সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনা স্হলে যান। বিষয়টি এসআই আবদুল জলিলও নিশ্চিত করেন,এবং বলেন আমি ঘটনা স্হল পরিদর্শন করেছি তবে এখনো থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি,অভিযোগ পেলে ওসি স্যারের নির্দেশ মতো ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মোস্তফালীর পরিবার সূত্রে জানা যায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..