1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৮:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিএসএনপিএস কমিটি গঠন:সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সাঃ সম্পাদক শামছুল আলম,সহ সাঃ সম্পাদক ছাবির উদ্দিন রাজু গাজীপুর ভবানীপুর এলাকার শামীম টেক্সটাইল মিলে তুলার গুদামে আগুন ‘জলবায়ু পরিবর্তনে ৭১ লাখ বাংলাদেশি বাস্তুচ্যুত’- ডব্লিউএইচও ভৈরবে আলোচিত তানজিনা হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী বিএমএসএফ প্রতিষ্ঠাতার কণ্যা জেরিন এসএসসিতে গোল্ডেন জিপিএ লাভ বিএমএসএফ নিজস্ব গঠনতন্ত্রে পরিচালিত ট্রাস্টিনামা দলিলের অন্তর্ভুক্ত নয় -সাধারণ সভায় নেতৃবৃন্দ সামাজিক সংগঠন জাগ্রত সিক্সটিনের উপহার পেল পঙ্গু রহিম মিয়া অভিযাত্রিক সাহিত্য ও সংস্কৃতি সংসদ এর  ২২৬১ তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত রংপুরে কৃষকের মুখে হাসি ফুলকপির  ফলন ভালো  হওয়ায় যশোর সীমান্তে এক কিশোরের সাইকেলে পাওয়া গেল ১৫ পিচ স্বর্ণের বার

দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন শিবগঞ্জের প্রতিমা শিল্পীরা

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১০৬ বার

মিজানুর রহমান, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ হিন্দু সম্প্রদায়ের বৃহত্তম উৎসব শারদীয় দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ব্যস্ত সময় পার করছেন শিবগঞ্জের প্রতিমা শিল্পীরা। করোনা প্রাদুর্ভাবে থেমে নেই প্রতিমা তৈরীর কাজ। প্রায় ২ মাস আগে থেকে শুরু হয় প্রতিমা তৈরীর কাজ, আর তখন থেকেই ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রতিমা শিল্পীরা। প্রতিবারের ন্যায় এবারও উপজেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপে উদযাপিত হবে দূর্গা পূজা। হিন্দু সম্প্রদায়ের দেবী দূর্গা এবার দোলায় আগমন এবং গজে গমন করবেন।

এ বছর উপজেলার ৫৩ টি পূজা মন্ডপে দূর্গাপূজার পূজা অর্চনা অনুষ্ঠিত হবে। উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটি ইতিমধ্যেই পূজা উদযাপনের সকল প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তবে করোনা ভাইরাসে কারনে এবার মন্ডপগুলোতে থাকবেনা সাজসজ্জা, সাদাসিধা ভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে উদযাপন করা হবে পূজা।

উপজেলার পূজা মন্ডপগুলো ঘুরে দেখা গেছে মন্ডপগুলোতে লেগেছে উৎসবের ছোয়া। বিরামহীন ভাবে কাজ করছে প্রতিমা শিল্পীরা। উপজেলার সাদুল্যাপুর গ্রামের প্রতিমা শিল্পী হরাধন মহন্ত প্রতিমা তৈরীর কাজ করছেন। ত্রিশ বছর ধরে এ পেশায় আছেন তিনি। তার বাবা ঠাকুররা সবাই এ পেশায় ছিলেন। এখন নিজে তৈরী করেন প্রতিমা। করোনা ভাইরাসের জন্য শঙ্কায় ছিলেন তিনি।

তারপরেওএবার তিনি ১০ টি প্রতিমা তৈরীর অর্ডার পেয়েছেন। এই ১০ সেট প্রতিমা তৈরীতে তাকে সহযোগীতা করছেন ২ জন সহকারী। দিন রাত কাজ করছেন তারা। নির্ধারিত সময়ের মধ্যই সরবরাহ করতে হবে প্রতিমা গুলো। তাই নাওয়া খাওয়ার ফুসরত নেই হরাধনের। প্রতি সেট প্রতিমা বিক্রয় হয় ২৫ -৩০ হাজার টাকায়।

সাদুল্যাপুর পুর গ্রামের প্রতিমা শিল্পী হরাধন মহন্ত বলেন, “হামরা খুব কষ্ট করে মাটির প্রতিমা বানাই। কি করমো আর অন্য কাম করবের পারিনে, তাই বাপ দাদার পেশা আঁকড়ে ধরে আছি”।

তিনি আরো জানান, প্রতিমা তৈরীর মাটি আগে গ্রামের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিনামূল্যে পাওয়া যেত, কিন্তু এখন সেই মাটি অন্য জায়গা থেকে ক্রয় করে আনতে হয়। হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে প্রতিমা তৈরী করে রোদে শুকিয়ে রং করে সেগুলো বিক্রি করা হয়। তার তৈরী প্রতিমা গুলো শিবগঞ্জ উপজেলা পেরিয়ে পাশ্ববর্তী সোনাতলা, ঘোড়াঘাট, গোবিন্দগঞ্জ সহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..