1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahmed : Sohel Ahmed
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাগেরহাটের রামপালে ০৯ (নয়) কেজির অধিক তামারসহ চোর চক্রের ০৩ জন সদস্য আটক জাপানি মেয়েসহ আত্মগোপনে থাকা বাবাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব সুস্থ-সবল-জ্ঞান-চেতনাসমৃদ্ধ দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ মানুষের দেশ গড়তে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু : ড.কলিমউল্লাহ শিক্ষাকে বাণিজ্যিক পণ্য বানাবেন না: রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ আলো থেকে আর অন্ধকারে ফিরে যাবে না – ওবায়দুল কাদের শেরপুরে ক্ষেতজুরে সূর্যমুখী ফুল গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় প্রতিবেশির জায়গা দখল করে বসতবাড়ি নির্মান করছে প্রভাবশালীরা বিশ্বনাথে উপজেলা আ’লীগের ভালবাসায় সিক্ত ভারপ্রাপ্ত পৌর মেয়র রফিক হাসান সাংবাদিক আলমগীর নূরকে অপহরণ,হত্যা প্রচেষ্টা; সন্ত্রাসী ও গডফাদারদের গ্রেপ্তার দাবী সুইডেনে কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে কালিগঞ্জে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত

দাগনভূঞায় পোকার আক্রমন ঠেকাতে আলোক ফাঁদ স্থাপন

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১৪ বার

 

মো. সাইফ উদ্দিন মিঠু, দাগনভূঞায় (ফেনী) প্রতিনিধিঃ

ফেনীর দাগনভূঞায় রোপা আমনের ফসলি জমিতে ক্ষতিকর পোকার উপস্থিতি সনাক্তকরণ ও দমনে ফসলি জমিতে আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হচ্ছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে এ আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হচ্ছে।

রোপা আমন ফসলের ক্ষতিকর পোকার উপস্থিতি উপস্থিতি জেনে দমন পদ্ধতির ব্যবস্থা গ্রহণে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করতে বিভিন্ন ব্লকে এই আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হয়। গতকাল সন্ধ্যায় একযোগে উপজেলার পঁচিশ টি ব্লকে এই আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, শুরুতেই পূর্ব চন্দ্রপুর ইউনিয়নের গজারিয়া ব্লকের পশ্চিম পূর্ব চন্দ্রপুর গ্রামে কৃষক আবু তাহেরের রোপা আমনের মাঠে আলোক ফাঁদ স্থাপনের শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ রাফিউল ইসলাম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি হাজী মোহাম্মদ শাহ আলাম, উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মারুফ, উপজেলা কৃষকলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ সামছ উদ্দিন, পূর্ব চন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোহাম্মদ মুজিবুল হক চৌধুরী, সাবেক ইউপি সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হক, রামনগর কে এম সি উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শিবু মজুমদার সহ এলাকার বিভিন্ন কৃষক।

এসময় একযোগে উপজেলার অন্যান্য ব্লকেও আলোকফাঁদ স্থাপন করা হয়।

পরে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ রাফিউল ইসলামের নেতৃত্বে কৃষি বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তারা স্থাপনকৃত পঁচিশ টি ব্লকের আলোক ফাঁদ পরিদর্শন করেন।

কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হারুন উর রশিদ বলেন, জমি থেকে ১০০ মিটার দুরে অন্ধকারে বাতি জ্বালিয়ে, বাতির নীচে সাবান পানি মিশ্রিত গামলা রেখে স্থাপন করতে হয়।

আলোর উপস্থিতি পেয়ে বিভিন্ন ধরনের ক্ষতিকর পোকা এসে গামলার মধ্যে পড়ে আটকে যায়।

এর মাধ্যমে ক্ষতিকর পোকা সনাক্ত করে ধান ক্ষেতে পরবর্তী দমন পদ্ধতি ঠিক করা হয়।

এসম্পর্কে কৃষকদের সচেতন করার জন্য উপজেলায় নিয়মিত আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হচ্ছে। বুধবার সন্ধ্যায় একযোগে ২৫ টি ব্লকে আলোক ফাঁদ স্থাপন করা হয়েছে।

উপস্থিত কৃষকরা জানান, আলোক ফাঁদের মাধ্যমে ক্ষতিকর পোকা নিধনে কোনো খরচ নেই এবং কীটনাশক ব্যবহার না করায় ক্ষেতেরও কোনো ক্ষতি হবে না।

এ জন্য তাদের ধানক্ষেতেও তারা আলোক ফাঁদ ব্যবহার করবেন বলে জানান।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ রাফিউল ইসলাম জানান, এ বছর উপজেলায় ৮ হাজার ৩শ চার হেক্টরের বিপরীতে ৮ হাজার ৩ শ দশ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান চাষ করা হয়েছে।

প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না হলে বাম্পার ফলনের আশা করছি।

পোকা মাকড়ের ক্ষতির হাত থেকে ফসল রক্ষায় পোকা দমনে কীটনাশকের ব্যবহার কমাতে পরিবেশবান্ধব আলোক ফাঁদ স্থাপনে কৃষকদের উদ্বুদ্ধকরণে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ কাজ করে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..