1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
ক্ষমা চাইলেন সাকিব আল হাসান - লাল সবুজের দেশ
রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ফেনীতে কিশোরী ধর্ষণের মামলায় পুলিশ সদস্য কারাগারে ভাষার মাসেই ফেনীতে ভাষার বাঁশির মোড়ক উন্মোচন হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেঁজুর রস সিলেটে এনা পরিবহন ও লন্ডন এক্সপ্রেস বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১১ আহত ৪০ সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার বিচার চেয়ে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন নবীনগর থানা প্রেসক্লাব ঘোষগাওঁ বহুমুখি উন্নয়ন ট্রাষ্ট, প্রবাস এর আত্নপ্রকাশ। চুনারুঘাটের গাজিপুরে ব্রিজের চাউনির জন্য ৩ বছর অপেক্ষায় ৩ গ্রামবাসী বাউফলে সন্ত্রাসীদের বিচারের দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান। চকরিয়ায় চিংড়ি ভাস্কর্য উদ্বোধন করেন- এমপি জাফর আলম অপহরণের ৭২ ঘন্টা পর স্কুল ছাত্রী উদ্ধার

ক্ষমা চাইলেন সাকিব আল হাসান

  • আপডেট টাইম: মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ১০৮ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। এর নেপথ্যে কলকাতায় কালীপূজা উদ্বোধন করার ঘটনা। অবশেষে বিষয়টি খোলাসা করে সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।

নিজের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে সোমবার একটি ভিডিও পোস্ট করেন সাকিব। সেখানে তিনি বলেন, আসলে বিষয়টি খুব সেনসিটিভ। প্রথমেই যা বলবো আমি নিজেকে একজন গর্বিত মুসলমান মনে করি। ভুলত্রুটি হবেই। ভুলত্রুটি নিয়েই আমরা চলাচল করি। আমার কোনো ভুল হয়ে থাকলে অবশ্যই ক্ষমা করবেন। আপনাদের মনে কষ্ট দিয়ে থাকলে অবশ্যই আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি।

এরপর তিনি বলেন, এখন আসি পূজার বিষয়টি নিয়ে। মিডিয়াসহ সব জায়গায় এসেছে আমি পূজা উদ্বোধন করতে গিয়েছিলাম। কিন্তু তা করতে আমি যাইনি, কখনো করিওনি। ওখানকার ইনভাইটেশন কার্ড দেখলেই আপনারা বুঝবেন কে পূজা উদ্বোধন করেছেন। আর সেটা হয়েছে আমি যাওয়ার আগেই।

টাইগার অলরাউন্ডার যোগ করেন, যেখানে আমার মূল প্রোগ্রাম হয়েছে সেটা অবশ্যই পূজা মন্ডপ ছিলো না। পাশে আরেকটি স্টেজ ছিল সেখানে পুরো অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠান শেষে পূজা মন্ডপ ক্রস করার সময় পরেশ দা, যিনি আমাকে ইনভাইট করেছিলেন তার অনুরোধে প্রদীপ প্রজ্বলন করি। যেহেতু কলকাতায় আমি অনেকদিন খেলেছি, ওখানকার মানুষরা আমায় অনেক পছন্দ করে, সবার উৎসাহের কারণে সেখানে দাঁড়িয়ে ছবি তোলা হয়।

সাকিব আরো বলেন, আমার যেখানে প্রোগ্রাম ছিল সেখানে পূজার কোনো অনুষ্ঠানই হয়নি। যেটা হয়েছে, দুই মিনিটের যে সময়ে আমি পূজা মন্ডপে ছিলাম সেটাতেই সবাই ধরে নিয়েছে আমি পূজার উদ্বোধন করেছি। কিন্তু এটা আমি কখনোই করিনি। এছাড়া একজন সচেতন মুসলমান হিসেবে আমি করবো না। ওখানে আমার যাওয়াটাই আসলে ঠিক হয়নি।

আশা করি সবাই বিষয়টি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আগামীতে এমন কোনো ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি হয় সেদিকেও খেয়াল রাখবো।

এরপর আসলে কে পূজা মন্ডপের উদ্বোধন করেছিলেন সেটি জানিয়ে সাকিব বলেন, পূজার উদ্বোধক ছিলেন ফিরহাদ হাকীম। তিনি কলকাতা পৌরসভার প্রশাসনিক প্রধান ও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের একজন মন্ত্রী। আমি আসার আগেই তিনি পূজার উদ্বোধন করেছেন।

আমি আমার ধর্মকে ছোট করে অন্য ধর্মকে বড় করবো এমন কোনো ইচ্ছে আমার নেই। ইসলাম একটি শান্তির ধর্ম। আমার জ্ঞান যদিও কম, আমি চেষ্টা করছি, ভবিষ্যতেও চেষ্টা করবো ইসলাম সম্পর্কে যতটা জ্ঞান নেয়া যায়। দোয়া করবেন আমি যেন নিয়ম মেনে চলতে পারি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার বেনাপোল স্থলবন্দর হয়ে ভারতে যান সাকিব। সেখানে কাজ শেষে শুক্রবার দুপুরে দেশে ফেরেন টাইগার অলরাউন্ডার।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 lalsabujerdesh.com
Theme Customized By BreakingNews