1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
যশোরে নবান্নের উৎসবে মেতে উঠেছে ধান চাষীরা। - লাল সবুজের দেশ
শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সকল ইতিবাচক সংবাদ বর্জনের ঘোষণা টিসিএ এর রংপুর অঞ্চলে ব্যান্ডরোল বিহীন বিড়িতে সয়লাব সারাদেশ রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার বলাৎকারের অভিযোগে দুই মাদ্রাসা শিক্ষক গ্রেপ্তার রাজারহাটে সাংবাদিক নামধারী মাদক সেবী এস এ লিমন জেলহাজতে বেনাপোল ভবারবেড় থেকে ১কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ ১জন আটক। শার্শা উপজেলায় শীতের সবজির বাম্পার ফলন। এবার ভারত থেকে ফিরতেও বাংলাদেশিদের লাগবে করোনা নেগেটিভ সনদ রাজনগরে পুলিশের মাস্ক সপ্তাহ শুরু। সোনাগাজীর মজলিশপুরে জাতীয়পার্টির মতবিনিময় সভা চান্দিনার মাইজখারের ৭ নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচনে প্রচারনায় ব্যস্ত আবুল বাসার মেম্বার পদপ্রার্থী।

যশোরে নবান্নের উৎসবে মেতে উঠেছে ধান চাষীরা।

  • আপডেট টাইম: বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫৯ বার পঠিত

 

এ্যান্টনি দাস(অপু)-ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি:
যশোর জেলার প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চল যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলায় গ্রামের ধান চাষী কৃষকেরা মেতে উঠেছে নবান্নের উৎসবে। নতুন ধান ঘরে তোলায় ব্যাস্ত সময় পার করছে তারা।

যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার শরুপদাহ ইউনিয়নে মোট ২৭ টি গ্রাম রয়েছে। শরুপদাহ ইউনিয়নের সামছা ডাঙা ইউনিয়নেই রয়েছে প্রায় ৫০০ বিঘা ফসলি জমি। যেখানে এবছর ধান চাষে বাদ যায়নি এক বিঘাও জমি। এছাড়া এই ইউনিয়নের মোট জমি প্রায় ২০০০ বিঘা। এই ২০০০ বিঘা জমিতে গত বছরের তুলনায় এবছর ফসলের তুলনামূলক ভালো ফলন হয়নি।তবে গত বছরের তুলনায় এবছর চাষীরা ফসলের ভালো দাম পাচ্ছে বাজারে। গতবছর যেখানে ধানের মন প্রতি ৭০০ টাকা করে বিক্রি হয়েছে, এবছর সেখানে মন প্রতি ১০০০ টাকা করে ধান বিক্রি হচ্ছে। তবে তাদের ফলনের হার এবং দাম অনুযায়ী খুব বেশি লাভ হচ্ছে না। ধানের ফলন সন্তোষজনক না হবার কারন জানতে চাইলে কৃষকেরা বলেন, এবছর মাত্রা অতিরিক্ত বৃষ্টি এবং নদীর পার্শবর্তি জমি গুলো বন্যার পানিতে হালকা প্লাবিত হওয়ায় আশানুরূপ ফলন হয়নি। তবে যতটুকু ফলন হয়েছে তাতে তাদের কোনভাবে লস হবার শঙ্কা থাকছে না।

এবছর প্রতিকূল অবস্থায় চাষীদের ধান চাষে বিঘা প্রতি ব্যায় হয়েছে ১০,০০০ থেকে ১৪,০০০ টাকা। এবং এবছর বিঘা প্রতি ধান পাচ্ছে ২০ থেকে ২৫ মন।

আষাঢ় মাসের শেষের দিকে তারা ক্ষয়রী সর্ন ধান(আমন) এবং জামাই বাবু এই দুইটি জাতের ধান রোপন করেন।

নতুন ধান কেটে মাড়াই ঝাড়াই করে ঘরে তোলার মধ্যে তাদের মধ্যে কাজ করছে অন্য রকম আনন্দ। নতুন ধানের চালের গুড়ির পিঠা পুলি উৎসবে মেতে উঠেছে এই গ্রাম গুলো।

চাষীরা বলেন, ধানের দাম এবছরের মতো প্রতিবছর ভালো দাম পেলে কোন দূর্যোগের কারনে ফসলের ক্ষতি হলেও ক্ষতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব। এবং পাশাপাশি অধিক ফসল ফলাতে আরো সুবিধাজনক হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 lalsabujerdesh.com
Theme Customized By BreakingNews