1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:০৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের অবস্থান সুদৃঢ় করেছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড.কলিমউল্লাহ বাংলাদেশ বিপুল পর্যটন সম্ভাবনাময় একটি দেশ – প্রধানমন্ত্রী উখিয়ায় ৭ কোটি টাকার ইয়াবার বিশাল চালানসহ ইয়াবা সম্রাট আলমগীর আটক চন্দনাইশ থেকে প্রায় ৫৩ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার, ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক রংপুরে জাতীয় দলের স্বপ্নাকে বরণ করতে জেলা প্রশাসকের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রংপুরে অসাধু চক্রের দৌড়াত্ম, অনিয়ম অব্যবস্থাপনা ও জনদূর্ভোগের প্রতিবাদ জানিয়ে চিকিৎসকদের মানববন্ধন সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে তালা প্রতীক পেলেন ইমাম উদ্দিন চৌধুরী দুর্গাপুরে সাবেক এমপি জালাল তালুকদারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে “প্রিয় রাঙামাটি” সামাজিক সংগঠনের সাথে  সৌজন্য সাক্ষাৎ অভয়নগরে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

রাজনগর উপজেলা আওয়ামীলীগে কোন্দল।

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৬৯ বার

 

মো:দেলোয়ার হোসেন-মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজারের জেলার রাজনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউপি চেয়ারম্যান সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবৃদ্ধ সহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক পর্যায়ে আনতে পুলিশ ১০৩ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৪ রাউন্ড টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে।

আজ ১১ফেব্রুয়ারি (বৃহঃবার) দুপুর ১টার পর থেকে উভয় পক্ষের সমর্থকরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র সহ রাজনগর উপজেলা পরিষদ এলাকায় জড়ো হন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাজনগর উপাজেলা চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহজাহান খান ও ৮ নং মনসুর নগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও রাজনগর উপাজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত এর মধ্যে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক বরাদ্ধ নিয়ে দন্ধ চলে আসছে। এরই জের ধরে উভয় পক্ষের সমর্থকরা দেশীয় অস্রসহ রাজনগর উপজেলা পরিষদ এলাকায় জড়ো হন।

এসময় একপক্ষ অপর পক্ষের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ সহ দেশীয় অস্র,আগ্নেয়াস্ত্র সহ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এ সময় তারেক মিয়া (৩০) নামের একজন গুলিবৃদ্ধ সহ ২০ জন আহত হয়। আহতদেরকে উদ্ধার করে রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ সুপার জাকারিয়া আহমেদ জানান,খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

ঘটিনাস্থলে আহত হন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ময়নুল ইসলাম খান (৪৫), মামুন আহমদ (২০), শরিফ মিয়া (২৫), ইয়ামিন আহমদ (৩৩), রমজান মিয়া (৩৩), রিয়াদ আহমদ (২৩), তারেক মিয়া (২৫), জালাল আহমদ (৩২), লিকন মিয়া (২৮), সেজু আহমদ (২৮), ইউসুফ আহমেদ (২৬), ফাহিম আহমদ (২৪), সাইম মিয়া (২০), রাজন মিয়া (২৫), পার্থ দাস (৪০), পরকিছ মিয়া ( ৬০), রিপন মিয়া (২২), রিয়াদ মিয়া (২২), পুলিশের এসআই এরশাদ, কন্সটেবল পবিত্র ও সুব্রতসহ অন্তত ৩০ জন।

রাজনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত্ বলেন, আগামী ১৬ তারিখ উপজেলা আওয়ামী লীগের জনসভা সফল করার লক্ষ্যে আমরা একত্রিত হয়েছিলাম। এসময় বিএনপি-জামায়াতের সহায়তায় উপজেলা চেয়ারম্যান আমাদের উপর হামলা চালান। আমাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলার সময় দুজন পুলিশ কর্মকর্তাও তাদেরকে সহায়তা করেছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান মো:শাহজাহান খান বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখতের নেতৃত্বে মিছিল করে। এসময় আমার বিরোদ্ধে আপত্তিকর বক্তব্য প্রদান করে তারা। বিষয়টি জেনে আমার শুভাকাঙ্খিরা বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার সময় মিছিলের আয়োজন করেছিল। এসময় মিলন বখতের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা আমার সরকারি কার্যালয়ে ভাঙচুর ও আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গুলি করে। এতে তারেক নামে আমার একজন কর্মী ঘাড়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..