1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের অবস্থান সুদৃঢ় করেছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড.কলিমউল্লাহ বাংলাদেশ বিপুল পর্যটন সম্ভাবনাময় একটি দেশ – প্রধানমন্ত্রী উখিয়ায় ৭ কোটি টাকার ইয়াবার বিশাল চালানসহ ইয়াবা সম্রাট আলমগীর আটক চন্দনাইশ থেকে প্রায় ৫৩ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার, ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক রংপুরে জাতীয় দলের স্বপ্নাকে বরণ করতে জেলা প্রশাসকের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রংপুরে অসাধু চক্রের দৌড়াত্ম, অনিয়ম অব্যবস্থাপনা ও জনদূর্ভোগের প্রতিবাদ জানিয়ে চিকিৎসকদের মানববন্ধন সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে তালা প্রতীক পেলেন ইমাম উদ্দিন চৌধুরী দুর্গাপুরে সাবেক এমপি জালাল তালুকদারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে “প্রিয় রাঙামাটি” সামাজিক সংগঠনের সাথে  সৌজন্য সাক্ষাৎ অভয়নগরে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

শালিখায় উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা প্রকল্পে সীমাহীন দূর্নীতি

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১১৯ বার

স্বপ্না খাতুন,
শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধিঃ উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ঢাকা হতে মাগুরা জেলার জন্য প্রায় ২২ কোটি টাকার অধিক বরাদ্দে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য চুড়ান্ত ভাবে এনজিও বাছাই ও নির্বাচনের পূর্বেই রোভা ফাউন্ডেশন এনজিওটির নামে নানান অনিয়ম ও দূরনীতির অভিযোগ উঠেছে। খোজ নিয়ে জানা যায়, কোন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি না দিয়েই এনজিওটি গোপনে সুপার ভাইজার ও শিক্ষিক নিয়োগ বানিজ্য করেছে। শিক্ষক হিসাবে পুরুষদের কাগজপত্র জমা নিলেও মহিলা ছাড়া কোন পুরুষকে নিয়োগ করা হয়েছে এমন খবর পাওয়া যায় নাই । তাছাড়া ৩/৪ মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও কোন সুপার ভাইজার বা শিক্ষিকাদের নিয়োগপত্র দেওয়া হয় নাই। সম্প্রতি একটি স্থানীয় পত্রিকা ও ফেইজবুক পেইজ এর মাধ্যমে জানা যায় রোভার এই প্রকল্পে সুপারভাইজার ও শিক্ষিক নিয়োগ প্রক্রিয়ার কাজ চলছে। রোভা এনজিওর অফিসের সাইনবোর্ড এ কর্তৃপক্ষের অনুমোতি ছাড়াই প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের লোগো ব্যবহার করা হয়েছে । উপজেলার কিছু কেন্দ্রের বই বিতরণ করলেও শিক্ষা কেন্দ্র ঘর নির্মান/ভাড়া করা বা অন্য কোন উপকরন দিয়ে এই রিপোর্ট্ লেখা পর্যন্ত কোন শিক্ষাকেন্দ্র চালু করা হয় নাই। শালিখা উপজেলায় পূর্বেও ২০১৮-২০১৯ সালে ছয় মাসের উপানুষ্ঠানিক পাইলট প্রকল্প বাস্তবায়নে এই সংস্থাটি শালিখা উপজেলাতে কাজ করে ছিল তখন এই এনজিওর নামে অর্থ্ আর্ত্সাত সহ নানা অনিয়ম এর সংবাদ স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল। খোজ নিয়ে জানা যায় শিক্ষকরা গত ২০১৮-২০১৯ সালের শিক্ষাকেন্দ্র পরিচালনা ব্যয় ও তাদের পরিশ্রমের বেতন এখনও বকেয়া রয়েছে। এ বিষয়ে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো মাগুরা জেলার সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস বলেন, ঐ ছয় মাস মেয়াদী প্রকল্প ২০১৮ – ২০১৯ শেষ হওয়ার প্রায় এক বছর পর শিক্ষকদের বেতন পরিশোধ করা হয়েছিল । কিন্তূ শিক্ষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, শিক্ষকদের বেতন মাথা পিছু ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা কম দেওয়া হয়েছিল। অনেকেই এখনও কয়েক মাসের বেতন পাবে বলে জানায়। প্রকল্পটি পাওয়ার ক্ষেত্রে রোভা ফাউন্ডেশনের এই ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়নের তেমন কোন অভিজ্ঞতা না থাকা সত্বেও বানোয়াট কাগজপত্র দিয়ে চুড়ান্ত তালিকায় মার্কি্ং নম্বর অনুসারে ১নং সৃজনী, ২নং সেতু, ৩নং রোভা ফাউন্ডেশন, ৪নং ইএডিএ ৫নং শাপলা সুখ, ৬নং আরডিসি সংস্থার নাম তালিভুক্ত ছিল। এনজিও বাছাই ক্ষেত্রে বড় ধরনের অনিয়ম হয়েছে বা এনজিওর কর্মিদের অনভিজ্ঞতার কথা উল্লেখ করলে সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস বিষয়টি এড়িয়ে যান এবং রোভা এনজিওর পক্ষ নিয়ে কোন ক্রমেই রোভা এনজিওর ক্লেম মানতে নারাজ। এছাড়াও মাগুরা জেলায় কর্ম্রত উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো অফিসের সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস মুঠো ফোনে জানান, প্রয়োজনীয় অভিজ্ঞতা না থাকলেও উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ঢাকা থেকে রোভা ফাউন্ডেশনকে কাজ দেওয়া হয়েছে ।স্থানীয় অভিজ্ঞতা সম্পন্ন অন্য কোন এনজিও সাথে এসোসিয়েট করে কাজ করার কথা থাকলেও সংশ্লিষ্ট সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস রোভার সাথে কোন এনজিওকে নিয়ে কাজ করতে চান না। সমাজ কল্যান সবুজ সংঘকে যুক্ত করে কাজ করার জন্য মহাপরিচালক মুঠোফনে অনুরোধ করলেও অনুরোধ গ্রহণ করিনি রোভা ফাউন্ডেশন। সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস এর সাথে কয়েক দফায় দেখা সাক্ষাত করে নিরুপায় হয়ে রোভা ফাউন্ডেশনের বর্তমান ও অতীতের বিভিন্ন অদক্ষতা ও দূর্নীতি তুলে ধরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মাননীয় সচিব প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয়, মাননীয় সচিব অর্থ- মন্ত্রনালয় এবং মহাপরিচালক উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর নিকট মোঃ আক্কাস আলী নামের এক ব্যক্তি একটি অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন। এব্যাপারে মোঃ আক্কাস আলী বলেন যে এনজিওকে কাজ দেয়াহয়েছে সে এনজিওটি বিএনপি পন্থি ও তার মালিক পক্ষের লোকজন গাড়ীতে বোমা হামলার আসামী। এ ছাড়া এডির সাথে তার রয়েছে মোটা অংকের অর্থনৈতিক লেনদেন।
এর পরও মাগুরা জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষার সংশ্লিষ্ট সহকারী পরিচালক সরোজ কুমার দাস নিজেই চেষ্টা করে রোভা ফাউন্ডেশনের অনুকুলে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো ঢাকা হতে গত ০৮/০২/২০২১ ইং তারিখে ছাড়কৃত (নভেম্বর ২০২০ হতে মার্চ্ ২০২১ পর্য্ন্ত) ১,৫৩,৭৪,০০০/-(এক কোটি তেতপান্ন লক্ষ চুয়াত্তর হাজার) টাকা মাগুরা জেলা হিসাব রক্ষন অফিস হতে উত্তোনের জন্য রোভা এনজিওর নির্বা্হী পরিচালক কাজী কামরুজ্জামান এর পক্ষ নিয়ে কাজ করছেন, এই অর্থ্ এলসি ভিত্তিক স্কুল প্রতিষ্ঠার জন্য এককালিন বরাদ্দ (উপকরন ক্রয় সহ), শিখন কেন্দ্রের ভাড়া,
শিক্ষার্থীদের জন্য খাতা, পেন্সিল, সার্প্নার, অংকন খাতা, শিক্ষার্থী্ এবং পিতামাতাদের/গার্ডিয়ানদের ফটোগ্রাফস, কমিউনিটি মোবিলাইজেশন ব্যয় এবং আইএসএ ম্যানেজমেন্ট খরচ ইত্যাদি ধরা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সচেতন মহল কতৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করছেন

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..