1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দেশে ঘুরে দাঁরিয়েছে জনশক্তি রপ্তানি আজ বিশ্ব পর্যটন দিবস বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের অবস্থান সুদৃঢ় করেছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড.কলিমউল্লাহ বাংলাদেশ বিপুল পর্যটন সম্ভাবনাময় একটি দেশ – প্রধানমন্ত্রী উখিয়ায় ৭ কোটি টাকার ইয়াবার বিশাল চালানসহ ইয়াবা সম্রাট আলমগীর আটক চন্দনাইশ থেকে প্রায় ৫৩ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার, ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক রংপুরে জাতীয় দলের স্বপ্নাকে বরণ করতে জেলা প্রশাসকের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রংপুরে অসাধু চক্রের দৌড়াত্ম, অনিয়ম অব্যবস্থাপনা ও জনদূর্ভোগের প্রতিবাদ জানিয়ে চিকিৎসকদের মানববন্ধন সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে তালা প্রতীক পেলেন ইমাম উদ্দিন চৌধুরী দুর্গাপুরে সাবেক এমপি জালাল তালুকদারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত

যুদ্ধবিমান পুনরায় স্থাপনের জন্য পবিপ্রবিতে মানববন্ধন

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১
  • ৬৬ বার

 

মোঃ শাহিন আলম পটু্য়াখালী জেলা প্রতিনিধি

কুয়াকাটা বরিশাল মহাসড়কের পাগলার মোড় নামক স্থানে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কয়ারে স্তম্ভে ব্যবহৃত যুদ্ধবিমান ভেঙে ফেলায় নিন্দা এবং ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ও স্থানীয়রা।

আজ ৭ই মার্চ বিকেল ৪টায় পবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা যুদ্ধবিমান ৩৬এফ -৬/এফ টি -৬ ভেঙে ফেলায় ও যুদ্ধবিমান পুনরায় স্থাপনের জন্য পবিপ্রবিতে মানববন্ধন করেছে।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রেজোয়ানা হিমেল সভাপতি শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল ,মোঃ মহসিন ,ইশরাক বিশাল জুবায়ের,মোঃ ইফতি,তরিকুল ইসলাম প্রমুখ।

উলেখ্য শনিবার দুপুরে পায়রা সেতুর অ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণের জন্য স্মারক যুদ্ধবিমান সংবলিত বিশ্ববিদ্যালয় নির্দেশক স্তম্ভটি ভেঙে ফেলা হয়।পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও চলমান লেবুখালী (পায়রা) সেতু প্রকল্পের কর্মকর্তাদের অব্যবস্থাপনায় এমনটি হয়েছে বলে অভিযোগ অনেকের।রাতে লেবুখালী সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. আব্দুল হালিম জানান, সেতু নির্মাণের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লং জিয়ন রোড অ্যান্ড ব্রিজ কনস্ট্রাকশন কোম্পানি বিশ্ববিদ্যালয় নির্দেশক স্তম্ভটি ভেঙেছে।

এদিকে স্থাপনাটিতে থাকা স্মারক যুদ্ধবিমানটি ভেঙে নষ্ট করে ফেলায় তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় বইছে।শিক্ষার্থীরা জানান, নির্দেশক স্তম্ভটিতে থাকা স্মারক যুদ্ধবিমানটি ভেঙে না ফেলে যদি সুরক্ষিত অবস্থায় অপসারণ করা হতো, তা হলে এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌন্দর্যবর্ধনের কাজে পুনরায় ব্যবহার করা যেত।বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও সেতু কর্তৃপক্ষের খামখেয়ালি ও অব্যবস্থাপনার কারণে স্মারক যুদ্ধবিমানটিকে ভেঙে তছনছ করে ফেলা হয়েছে, যেটি অত্যন্ত নিন্দনীয়।এদিকে এ ঘটনায় পরস্পরকে দোষারোপ করছে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও লেবুখালী সেতু নির্মাণকারী কর্তৃপক্ষ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..