1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩০ কেজি তামার তারসহ আটক ২ শাকিব খানকে নিয়ে যা বললেন অপু বিশ্বাস চুনারুঘাট হাসপাতালের পুরাতন মালামাল নিলামে অনিয়মের অভিযোগ, অসদাচরণ করলেন সিভিল সার্জন দুর্গাপুরের রাস্তার এক পাগলির আশ্রয় মিলল সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে বরগুনায় শুরু হয়েছে মাস ব্যাপি শিশু আনন্দ মেলা চৌদ্দগ্রামে বাসের ধাক্কায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ২ নালিতাবাড়ীর বিভিন্ন পূজা মন্ডপে আর্থিক অনুদান প্রদান নাঙ্গলকোটে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দুর্বৃত্তদের হামলায় যুবকের পা বিচ্ছিন্ন ‘একটি স্বপ্ন-সোপান’এর আয়োজনে নালিতাবাড়ীতে রচনা প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

৩জন কৃষকের জমির পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিলেন মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৫৪ বার

সংবাদ দাতা ঃ

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মিয়াজির পাড়া গ্রামের ৩জন কৃষকের জমির ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

লকডাউনে শ্রমিক না পাওয়ায় ধান নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়ছেন কৃষকরা। কৃষকদের ধান কেটে দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশ দেন। পরে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস.এম সাদ্দাম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনানের নির্দেশে নেতাকর্মীরা মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মিয়াজির পাড়া গ্রামের ৩জন কৃষকের জমির ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ শাহারিয়া বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এলাকার কৃষকরা অসহায় হয়ে পড়েছেন। ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস.এম সাদ্দাম হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ আদনান ভাইয়ের নির্দেশে মানবিক দিক বিবেচনা করে মাতারবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা অসহায় কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছি।

তিনি আরও বলেন, এলাকার কোনো কৃষক যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্য এ কাজ করা হচ্ছে। কোনো কৃষক সহায়তা চাইলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের পাশে দাঁড়াবে।

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পাকা ধান কেটে দেয়ায় কৃষকরা অনেকটাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। তারা বলেন, অন্যের জমি বর্গা নিয়ে ধান চাষ করেছেন। লকডাউনের মধ্যে ধান কাটার উপযুক্ত হয়। লকডাউনে শ্রমিক সংকটের কারণে পাকাধান কাটতে পারছিলাম না। এছাড়াও এলাকায় যে শ্রমিক পাওয়া যায় তাদের মজুরি খুব বেশি। ক্ষেতের ধান পাকার পরও তা কাটতে না পারায় কিছুটা ক্ষতির শঙ্কায় ছিলাম। আমাদের এমন অসহায়ত্বের কথা শুনে ছাত্রলীগ নেতা শাহারিয়া ভাই আরও নেতাকর্মী সঙ্গে নিয়ে এসে টাকা-পয়সা ছাড়াই আমাদের ক্ষেতের ধান কেটে দেন। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা যেভাবে আমাদের ধান কাটতে সাহায্য করেছেন তা কখনও ভুলব না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..