1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বদরবারে বাংলাদেশের অবস্থান সুদৃঢ় করেছিলেন বঙ্গবন্ধু: ড.কলিমউল্লাহ বাংলাদেশ বিপুল পর্যটন সম্ভাবনাময় একটি দেশ – প্রধানমন্ত্রী উখিয়ায় ৭ কোটি টাকার ইয়াবার বিশাল চালানসহ ইয়াবা সম্রাট আলমগীর আটক চন্দনাইশ থেকে প্রায় ৫৩ লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার, ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক রংপুরে জাতীয় দলের স্বপ্নাকে বরণ করতে জেলা প্রশাসকের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত রংপুরে অসাধু চক্রের দৌড়াত্ম, অনিয়ম অব্যবস্থাপনা ও জনদূর্ভোগের প্রতিবাদ জানিয়ে চিকিৎসকদের মানববন্ধন সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে তালা প্রতীক পেলেন ইমাম উদ্দিন চৌধুরী দুর্গাপুরে সাবেক এমপি জালাল তালুকদারের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা অনুষ্ঠিত নবাগত পুলিশ সুপারের সাথে “প্রিয় রাঙামাটি” সামাজিক সংগঠনের সাথে  সৌজন্য সাক্ষাৎ অভয়নগরে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক নিহত

মুজিব বর্ষের ঘর তুলতে বাঁধা দেবার চেষ্টা

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ১০৫ বার

 

দেওয়ানগঞ্জ প্রতিনিধিঃ জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় খাস জমিতে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ভূমিহীন ও গৃহহীনের গৃহনির্মাণ কাজের বাঁধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার সীমান্তবর্তী ডাংধরা ইউনিয়নের পূর্ব নিমাইমারী এলাকায় কারখানা মৌজাধীন ০১ নম্বর খতিয়ানে ৭৩৪৯ নম্বর দাগে ২ একর ৯২ শতাংশ জমি দীর্ঘদিন যাবত নিমাইমারী গ্রামের মৃত আকছের আলীর ছেলে সরবত আলী ভূমিহীন নামে ভোগ দখল করে আসছেন।

‘আশ্রয়নের অধিকার প্রধানমন্ত্রীর উপহার” এই শ্লোগানকে সামনে নিয়ে সারাদেশের ন্যায় দেওয়ানগঞ্জে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর কাজ শুরু হলে সরকারি জমি সরবত আলীর দখলীয় ২ একর ৯২ শতাংশ জমি উদ্ধার করেন দেওয়ানগঞ্জ সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসাদুজ্জামান।

উদ্ধারকৃত জমিতে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের গৃহনির্মাণ কাজ শুরু করলে সরবত আলী ও তার লোকজন স্থানীয় আওয়ামী লীগ সভাপতি আজিজুর রহমান কাজে বাঁধা দেন এবং শরবত আলীর পৈতিক সম্পত্তি বলে দাবি করে জেলা প্রশাসকের বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেন।

সরবত আলী জানান, এ জমি আমার বাপ দাদার ১০০ বছর আগের পৈত্রিক সম্পত্তি। এখানে এক সময় নদী ছিল, বর্তমানে আমার বাড়ি ঘর, গাছপালা ও আমের বাগান আছে। জোর করে বাড়িঘর ভেঙ্গে পাঁচ শতাধিক গাছপালা কেটে দিয়ে মাসুদ চেয়ারম্যান গৃহহীন প্রকল্প উঠানোর চেষ্টা করছে।
দাদার নামে সি এস রেকর্ডভুক্ত। বি আর এস রেকর্ড এর জন্য মামলা প্রস্তুত করা আছে। বিগত ৪ বছর আগে স্থানীয় ভূমি অফিস ২০১৬ সনে ভূমিহীনদের মাঝে ভূমি বন্দোবস্ত এর জন্য আবেদন জমা দেওয়া আছে।

ইউপি চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ মাসুদ জানান, অভিযোগকারীর অভিযোগ সত্য নয়। সরবত আলী ভূমিহীন নয়। তার পাকাবাড়ি, বসত ভিটাসহ ৩-৪ একর জমি আছে। সরকারি জমি দখল করে রাখার জন্য ভূমিহীন সেজে মিথ্যা অভিযোগ করেছেন তিনি।

অভিযোগের ভিত্তিতে ২৮ এপ্রিল অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. রফিকুল ইসলাম ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন ও প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ভূমিহীনদের জন্য ঘর তৈরীর কাজে বাঁধা না দেওয়ার অনুরোধ এবং সকলের একান্ত সহযোগিতা কামনা করেন।
এসময় সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসাদুজ্জামান, সরকারি অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ শতাধিক গ্রামবাসী উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..