1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩০ কেজি তামার তারসহ আটক ২ শাকিব খানকে নিয়ে যা বললেন অপু বিশ্বাস চুনারুঘাট হাসপাতালের পুরাতন মালামাল নিলামে অনিয়মের অভিযোগ, অসদাচরণ করলেন সিভিল সার্জন দুর্গাপুরের রাস্তার এক পাগলির আশ্রয় মিলল সরকারি আশ্রয় কেন্দ্রে বরগুনায় শুরু হয়েছে মাস ব্যাপি শিশু আনন্দ মেলা চৌদ্দগ্রামে বাসের ধাক্কায় কলেজ ছাত্রীসহ নিহত ২ নালিতাবাড়ীর বিভিন্ন পূজা মন্ডপে আর্থিক অনুদান প্রদান নাঙ্গলকোটে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারের অভিযোগ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় দুর্বৃত্তদের হামলায় যুবকের পা বিচ্ছিন্ন ‘একটি স্বপ্ন-সোপান’এর আয়োজনে নালিতাবাড়ীতে রচনা প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত

দৌলতপুরে এনজিওর টাকা এনজিও কর্মী নিয়ে উধাও।

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১
  • ১৩৩ বার

 

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি //

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের বড়গাংদিয়া বাজারে অবস্থিত কাবেজ আলীর খাট, সোকেচ, আলমারি, টিভি ফ্রিজ জাতীয় শোরুমের ব্যাবসা।

সেখানে নগদ ও সহজ কিস্তির মাধ্যমে বিক্রি করা হয় পন্য, আর সেই কিস্তিতে বিক্রিয় হওয়া পন্যগুলোর টাকা আদায় করার লক্ষে নিয়োগ পায় আফরোজা খাতুন নামের দৌলতপুর উপজেলার সেন্টার মোড়ের বসবাসরত এই মহিলা।

বিগত কয়েক বছর ধরে সেখানে আফরোজা খাতুন কাজ করার কারনে ঐ শোরুমের মালিক কাবেজ আলীর কাছে হয়ে উঠে বিশ্বাসী।

এমন সুযোগ কাজে লাগিয়ে কাবেজ আলীর ব্যাবসায়ী লেনদেনের মধ্য থেকে সু কৌশলে হতিয়ে নেয় লক্ষ লক্ষ টাকা বলে অভিযোগ করে শোরুমের মালিক কাবেজ আলী।

সব কিছু ঠিকঠাক মতো চলছিলো, হঠাৎ একদিন শোরুম মালিক কাবেজ আলী নিজে আফিসিয়াল মুল খাতা ও সিট নিয়ে মাঠ পরিদর্শন করতে গেলে দেখে বেসির ভাগ গ্রহকদের কাছ থেকে পাওনা টাকা উঠানো হয়ে গেছে।
এবং কিছু গ্রাহকদের কাছ থেকে পন্য দেবে বলে নিয়েছে আতিরিক্ত টাকা এসকল কথা শুনে রিতি রকম হতবম্ভ হয়ে যায় কাবেজ আলাী।

কোন দিশে না পেয়ে কাবেজ আলী খবর দেয় মাঠকর্মী আফরোজা ও তার পরিবারের লোকজনকে, এক পর্যায়ে আফরোজা সহ তার পরিবারের লোকজন কাবেজের বাড়িতে দেখা করতে আসে এবং সেখানে স্থানিয় চেয়ারম্যান সহ এলাকার লোকজনের সমন্নয়ে মাঠকর্মী আফরোজা খাতুনের কাছ থেকে টাকার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে, হিসাব করে আফরোজার পরিবারের লোকজন নয় ছয় করে হাতিয়ে নেওয়া টাকা ফিরোৎ দিতে রাজি হয়।

পরে সেখান থেকে টাকা নিতে আসার নাম করে মাঠকর্মী আফরোজার পরিবারের লোকজন থানায় উপস্থিত হয়ে কাবেজ আলীর নামে একটি এজাহার দায়ের করে এবং এজাহারে উল্লেখ করা হয় কাবেজ আলী মাঠকর্মী আফরোজা খাতুনকে কিডন্যাপ করে নিয়ে গেছে।
এমন মিথ্যা এজাহারের ভিত্তিতে পুলিশ কাবেজ আলীকে গ্রেফতার করে নিয়েও যায় বলে অভিযোগ করে ব্যাবসায়ী কাবেজ আলী। বর্তমান কাবেজ আলী ঐ মিথ্যা মামলা থেকে জামিনে আছে।

এবিষয় গণমাধ্যম কর্মীরা অনুসন্ধানে গেলে মেলে আভিযোগের সত্যতা।

জানা যায় একাধিক গ্রহকের কাছ থেকে মাঠকর্মী আফরোজা খাতুন প্রতি সপ্তাহে টাকা নিয়ে গেলেও তা মুল খাতায় জমা হিসাব না দিয়ে নিজেই রেখে দিয়েছে।

এবিষয় ১৪ নং আড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাঈদ আনছারী বিপ্লব বলেন কবেজ আলীর নামে মিথ্যা মামলার কথা শুনে আমি তো হতবাক তিনি আরো বলেন কাবেজ আলী মাঠকর্মী আফরোজাকে কিডন্যাপ টা করলো কখন আামার বুঝে আসে না। একটি আভিযোগের ভিত্তিত মাঠকর্মী আফরোজ খাতুনকে তার পরিবারের লোকজন সহ বসে সমস্য সমাধান করার চেষ্টা করা যদি কিডন্যাপ হয়, তাহলে আমাদের আর কিছু বলার থাকে না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..