1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১২:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
উদ্বাস্তু পুনর্বাসনে বঙ্গবন্ধু অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন: ড.কলিমউল্লাহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্নচারী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ বিজিবির রাতভর অভিযানে ভোরে ৯ গরু জব্দ, আরো ৫১টি গরু পাহাড়ে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন,ভুয়া এমবিবিএস ও এমডি পদধারী প্রতারক ডাক্তার আটক র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসকারীদের জন্য ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ঈদগাঁও বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ! বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হারাগাছ সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত। রংপুরের গংচড়ায় বিধবা ভাতা ও একটি টিনের ঘরের জন্য আকুতি জানিয়েছেন রুনা লায়লা গ্লোবাল টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসী মুন্নার গ্রেফতারের দাবিতে সাভারে বিভিন্ন কর্মসূচী

ঝালকাঠিতে অগ্নিকান্ডে কোটি টাকার ক্ষতি, আহত-৪

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৩৬ বার

 

আবু সায়েম আকন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ

ঝালকাঠির কাঠালিয়ার আমুয়া বন্দর বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে।শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় দিকে নেছারের খাবার হোটেল থেকে আগুনের সুত্রপাত ঘটেছে বলে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানিয়েছে।

অগ্নিকাণ্ডে বাজারের ৭টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে এবং ৩/৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আংশিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এছাড়া এই অগ্নিকাণ্ডে আমুয়া বন্দর আমির মোল্লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তিন কক্ষের একটি টিনসেট কাঠের ঘর পুড়ে যায়।

অগ্নিকান্ডের ঘটনায় স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ ৪জন আহত হয়েছেন। কাঠালিয়া ও বামনা ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। অগ্নিকান্ডের ঘটনায় প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ব্যবসায়ীদের দাবি।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা জানান, বাজারের নৈশ প্রহরীরা আগুন জ্বলতে দেখে ডাক চিৎকার দেয় এবং মসজিদ থেকে মাইকিং করলে স্থানীয়রা ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু মুহুর্তের মধ্যে আগুন আশপাশের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছড়িয়ে পড়ে। পরে কাঠালিয়া ও বামনা ফায়ার সার্ভিসের ২টি ইউনিট খবর পেয়ে এসে দুই ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার আগেই মো. নেছারের হোটেল, আমুয়া বন্দর আমীর মোল্লা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের টীনসেট ৩ কক্ষের একটি কাঠের ঘর, পলাশের কম্পিউটারের দোকান, মাসুদের জুতার গোডাউন, বাবুলের গামের্ন্টস পোষাকের দোকান, বাবুলের জুতার দোকান, শাহজাহানের মুদি দোকানসহ ৬/৭টি দোকান পুড়ে যায়। স্থানীয়দের মতে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

কাঠালিয়া ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন কর্মকর্তা মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, রাত ১২ দিকে আগুণ লাগার খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক আমরা ঘটনাস্থলে যাই এবং আগুণ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালাই। পরে বামনা ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট আমাদের সাথে যোগ দিলে দুই ঘন্টার প্রচেষ্টায় আগুণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছি। এতে ৩৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..