1. admin@lalsabujerdesh.com : ডেস্ক :
  2. lalsabujerdeshbd@gmail.com : Sohel Ahamed : Sohel Ahamed
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
উদ্বাস্তু পুনর্বাসনে বঙ্গবন্ধু অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন: ড.কলিমউল্লাহ বঙ্গবন্ধু স্বপ্নচারী এবং দূরদর্শী ব্যক্তিত্ব ছিলেন: ড.কলিমউল্লাহ বিজিবির রাতভর অভিযানে ভোরে ৯ গরু জব্দ, আরো ৫১টি গরু পাহাড়ে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার ও সার্জন,ভুয়া এমবিবিএস ও এমডি পদধারী প্রতারক ডাক্তার আটক র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ে বসবাসকারীদের জন্য ১৯টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে ঈদগাঁও বাজারে চাঁদা দাবির অভিযোগ! বিশ্ব বাবা দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠিত হারাগাছ সাহিত্য সংসদের সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত। রংপুরের গংচড়ায় বিধবা ভাতা ও একটি টিনের ঘরের জন্য আকুতি জানিয়েছেন রুনা লায়লা গ্লোবাল টিভির সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদ ও সন্ত্রাসী মুন্নার গ্রেফতারের দাবিতে সাভারে বিভিন্ন কর্মসূচী

দূর্গাপুরে ভাঙাঁ রাস্তায় কষ্টে চলাচল

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৩২ বার

 

আল নোমান শান্ত
দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার চন্ডিঘর ইউনিয়নের গ্রামীণ সড়কের বেহাল দশা। স্বরণিকা স্কুল হতে কেরনখলা বাজার পযন্ত প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তা খানাখন্দে ভরা। রাস্তায় গাড়ি চলে হেলেদুলে। পিচ উঠে বিভিন্ন জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়তই আসা-যাওয়া করছে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা,মোটরসাইকেলসহ ছোট-বড় সব ধরনের যানবাহন। ভাঙা রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে রিকশা ও অটোরিকশার যাত্রীরা যেমন নাকাল হচ্ছেন,তেমনি প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। বিশেষ করে রাতে এ সড়ক দিয়ে চলাচল করা অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সড়কটির কোথাও পিচঢালাই উঠে বিভিন্ন জায়গায় সৃষ্টি হয়েছে বড় বড় গর্ত। স্বরণিকা স্কুল হতে কেরনখলা বাজার পযন্ত প্রায় ৩ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল অবস্থা। এ নিয়ে ভোগান্তি পোহাতে হয় এ রাস্তা দিয়ে যাতায়াতকারী ব্যক্তিদের। রাতে এ সড়ক দিয়ে চলাচল করা অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠে বলে জানালেন একাধিক অটোচালক। এঁদের একজন অটোচালক হাবিবুল্লাহ বলেন, এই সড়কে চলাফেরা করতে অনেক কষ্ট হয়। আমরা এ রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করি। ভাঙা রাস্তার কারণে গাড়ি প্রায়ই বিকল হয়ে যায়। বেশির ভাগ রাস্তা ভেঙে পিচ উঠে গর্তের কারনে অটো থেকে যাত্রীদের নামিয়ে তারপর গর্ত পাড় হতে হয়। বিশেষ করে অন্য রোডের কেনো অটো এই সড়কে আসলে রাস্তার বেহাল দশায় অটো নিয়ে যেতেই পারে না, আমরা তো চলাফেরা করতে করতে কিছুটা আনধাজ করতে পারি। তারপরও রাতে চলাচল করতে খুবই কষ্ট হয়। পথচারী মামুনুর রশীদ বলেন, গ্রাম হতে দুর্গাপুর শহরে যেতে এ রাস্তা দিয়ে যেতে হয়, অনেক কষ্ট পোহাতে হয়। এছাড়াও এলাকাবাসীরা জানায়,হাঁটতে গেলেই হোঁচট খেতে হয়। এ রাস্তাটি অতিদ্রুত মেরামত করার জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন ভুক্তভোগীরা।

এ ব্যাপারে চেয়ারম্যান এমদাদুল হক আলম সরকার বলেন,রাস্তাটির অনেক খারাপ অবস্থা এটি মেরামত করার বিষয়ে এমপি মহোদয়ের কাছে আবেদন জানিয়েছি।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..